ইন্টারনেটে ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হয় যেভাবে

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১১:৫৭

সম্প্রতি ইন্টারনেটে ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হিড়িক লেগেছে। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিরুদ্ধে তথ্য চুরির অভিযোগ উঠেছে। বিশেষ করে ফেসবুক রয়েছে অভিযোগের প্রথম সাঁড়িতে।  

কিন্তু, কীভাবে হয় এই তথ্য চুরি? উত্তর খুঁজতে গিয়ে উঠে এসেছে নানা তথ্য৷ অনেক সময়ই বিভিন্ন ধরণের অনলাইন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে থাকেন ব্যবহারকারীরা৷ বিজেতাদের দেওয়া হয় পুরস্কারও৷ তবে, সেজন্য রয়েছে বেশ কিছু বৈধ অ্যাপ৷ যারা বিক্রেতাদের থেকে গিফট কার্ড কোডগুলিকে কিনে নেন৷

ইতিমধ্যেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই ধরণের ওয়েবসাইটগুলি৷ আর, সেই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়েই সাইবার ক্রিমিনালরা সংগ্রহ করছে ইউজারদের গোপন তথ্য৷

ক্যাসপারস্কি ল্যাবের এক কর্মকর্তা বলেন,‘ব্যবহারকারীদের বিনামূল্যে কিছু পাওয়ার মনোভাবই সাইবার ক্রিমিনালদের প্রতারণার সুযোগ করে দিচ্ছে৷ যদিও, গুরুত্বপূর্ণ কিছু না করেই তারা বেশিরভাগ সময় কাটান, সঙ্গে অর্থের অপচয়ও করে থাকেন৷ তাই, শুধুমাত্র বৈধ ও বিশস্ত সাইটগুলির থেকেই গিফটকার্ড সংগ্রহ করুন৷’

গিফটকার্ডের কোড পাওয়ার জন্য ইউজারকে প্রমাণ করতে হয় তিনি রোবট নন৷ আর সেন্যই ব্যবহারকারীকে একাধিক লিঙ্ক এবং টাস্ক করতে হয়৷ 

উদারহণ হিসেবে বলা যায়, অনেকসময়ই ইউজারকে একটি ফর্ম ফিলাপ করতে বলা হয়৷ যেটিকে ফোন নম্বর, ই-মেল সহ অন্যান্য তথ্যাদির প্রয়োজন পড়ে৷ এরপর, গ্রাহক পান অর্থহীন কোডটি৷ 

এভাবেই দিনের পর দিন নিজের অজান্তে সাইবার ক্রিমিনালদের আয় বৃদ্ধি করে চলেছে ব্যবহারকারীরা৷ তাই, এই ধরণের লিঙ্কগুলিকে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিতে নিষেধ করছেন ক্যাসপারস্কি ল্যাবের গবেষকরা৷ ফাঁদগুলিকে এড়িয়ে যাওয়াই প্রতারণা থেকে মুক্তির একমাত্র উপায়, এমনটাই মনে করছেন তারা৷

(ঢাকাটাইমস/১৫অক্টোবর/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত