বাগমারায় আ.লীগ নেতাকে ‘তুলে নেয়ার’ অভিযোগ

ব্যুরো প্রধান, রাজশাহী
 | প্রকাশিত : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:৫৩

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের এক নেতাকে ‘তুলে নিয়ে যাওয়ার’ অভিযোগ পাওয়া গেছে। আবদুস সালাম নামের ওই নেতা উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক।

রবিবার দুপুরে তাকে কালো রঙের একটি মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ স্বজনদের।

আবদুস সালামের বাড়ি উপজেলার চেউখালি গ্রামে। গত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছিলেন। পেয়েছিলেন নৌকা প্রতীক। তবে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা তার দলীয় মনোনয়নপত্র বাতিল করেছিলেন।

সালাম নিখোঁজের ঘটনায় তার স্ত্রী আফরোজা বেগম রবিবার রাতে বাগমারা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। তার সন্ধান চেয়ে সোমবার দুপুরে চেউখালিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনও করেছেন এলাকাবাসী। তারা নিখোঁজ আবদুস সালামের ছবি হাতে নিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন। এ সময় তারা আবদুস সালামকে ‘উদ্ধারের’ জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি দাবি জানান।

জিডির বরাত দিয়ে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহমেদ বলেন, রবিবার দুপুরে বাগমারার ভবানীগঞ্জ থেকে মোটরসাইকলে চালিয়ে সালাম বাড়ি ফিরছিলেন। পথে পলাশী গ্রামের মাঠে মধ্যে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে কয়েকজন অজ্ঞাত ব্যক্তি তাকে একটি কালো মাইক্রোবাসে জোর করে তুলে নিয়ে যান। এরপর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

সালামের বিরুদ্ধে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ সম্পর্ক জানতে চাইলে ওসি বলেন, এক সময় তালিকায় তার নাম ছিল বলে শুনেছি। তবে এখন নেই। এখন তিনি আওয়ামী লীগের ‘উঁচুমানের’ নেতা। তাকে কে তুলে নিয়ে গেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ বিষয়ে আমরা খোঁজখবর নিচ্ছি।

(ঢাকাটাইমস/১৫অক্টোবর/আরআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত