ক্রিকেট তো সম্পূর্ণ মানসিকতার খেলা: লিটন

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:২৫ | প্রকাশিত : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১৬:২১

ক্যারিয়ারের শুরুটা বেশ ভালো ভাবে করতে পারেননি লিটন কুমার দাস। ব্যাট হাতে তালগোল পাকিয়ে বারবারই ব্যর্থ হয়ে ফিরতে হয়েছে। যার জন্য নিয়মিত সমালোচনার কাঠগড়ায়ও থাকতে হতো। কিন্তু সদ্য শেষ হওয়া এশিয়া কাপ বদলে দিল তাকে। এশিয়া কাপের ফাইনালে দারুণ ছন্দে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ফিরে ফেলেন থিতু হওয়া আত্মবিশ্বাস। দুবাই থেকে ফিরে জাতীয় লিগেও তার ডাবল সেঞ্চুরী।

আর এমন ছন্দে ফেরার পর নিজেকে অনেকটা চাপমুক্ত ভাবছেন লিটন। তার মতে ক্রিকেট মানসিকতার খেলা। চাপমুক্ত খেলছেন বলেই ভালো ফর্মে আছেন। এই ধারাবাহকতা নিয়েই এখন সামনে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য।

জিম্বাবুয়ে সিরিজকে সামনে রেখে দ্বিতীয় দিনের অনুশীলনের সময় নিজের ফর্মে নিয়ে লিটন বলেন,‘একজন ক্রিকেটার পারফর্ম করলে মাথা থেকে চাপ জিনিসটা সরে যায়। ক্রিকেট তো সম্পূর্ণ মানসিকতার খেলা। মানুষ বলে, মন যত পরিস্কার থাকবে তত ভাল খেলবেন। যেহেতু আগে তেমন পারফর্ম করি নি, তখন মনে মনে নিজের সামর্থ্যে একটু প্রশ্ন থাকেই। আর পারফর্ম করার পর মানসিকভাবে একটু চাপ মুক্ত হওয়া যায়। চাপমুক্ত হওয়ার কারণেই হয়তো ভাল হয়েছে।’

এশিয়াকাপে সেঞ্চুরির পর দেশে ফিরেই এনসিএলে ডাবল সেঞ্চুরি। দুই ইনিংসের মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সেঞ্চুরিটাকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন লিটন। তিনি বলেন,‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সেঞ্চুরি বেশি গুরুত্ববহ। আপনারাও ভাল জানেন, আমি অনেক দিন ধরেই ব্যাকফুটে ছিলাম। পারফর্ম করাটা আমার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল। একই সাথে আমার জীবনের প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি, এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে আগে থেকেই নিয়মিত লিটন। প্রথম শ্রেণীতে তার গড়টাও পঞ্চাশের উপরে। লিস্ট-এ ক্রিকেটেও একই রকম। তবুও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোন কিছু ঠিকঠাক মত যাচ্ছিল না।এতদিনের ঘাটতিটা পূরণ করে এবার নিজের লক্ষ্যে স্থির হলেন। নিদাহাস, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও এশিয়া কাপের ভাল ইনিংসের পর নিজের এই ধারাবাহিকতাকে ধরে রাখাই এখন লিটনের মূল লক্ষ্য।

‘হ্যাঁ, আমার মূল লক্ষ্য ধারাবাহিক থাকা। আমার মনে হয় আমি যখন ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলি, তখন ধারাবাহিক পারফর্মেন্স দিয়ে থাকি। ওই জিনিসটাই ঘাটতি ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। আমি চেষ্টা করছি, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও ধারাবাহিক ভাবে পারফর্ম করে যাওয়ার।’

এশিয়া কাপে যাওয়ার আগে বলেছিলেন বড় ইনিংস বড় ক্রিকেটাররা খেলে। নিজেকে বড় ক্রিকেটারের কাতারেও ভাবছেন না। এখন বড় বড় ইনিংস খেলার পর নিজেকে বড় ক্রিকেটার ভাবছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে লিটন বলেন,‘এখনও বড় প্লেয়ার হই নি (হাসি)। কিন্তু আমি চেষ্টা করব, ধারাবাহিকতা বজায় রেখে নিয়মিত পারফর্ম করার।আমি বলবো না যে পূর্ণ আত্মবিশ্বাস আছে। তবে আগে থেকে একটু চাপ মুক্ত অবস্থায় আছি, এটা বলতে পারেন। আর নিজের প্রতি একটু আত্মবিশ্বাস এসেছে। যখন ভাল কিছু করে তখন নিজের ভেতর এই জিনিসটা আসে।

চোটের কারণে দলে নেই নিয়মিত ওপেনার তামিম ইকবাল। যার জন্য এবার লিটনের সঙ্গে ওপেনিংয়ে ব্যাট ধরবেন নতুন কেউ।তামিমের না থাকার প্রসঙ্গ সামনে আসতে লিটন বলেন,‘আমিও যে দলে নিয়মিত ছিলাম, তাও না। তামিম ভাই ছিল নিয়মিত। তাঁর সঙ্গে সবাই আসা যাওয়ার মধ্যে ছিল। আমি নিয়মিত হওয়ার কোন সুযোগই ছিল না। এখন আমার সাথে যে সঙ্গী হবে, সেও নতুন হবে, আমিও নতুন। হ্যাঁ, আত্মবিশ্বাসের জায়গা থেকে একটু ভাল জায়গায় আছো হয়তো। কিন্তু আমি আগেও বলেছি, প্রতিটা ম্যাচ নির্ভর করে সেই দিনের ওপরে। হতে পারে পরের ম্যাচে আমি শূন্য রানও করতে পারি। তাই আকাশ ছোয়া আত্মবিশ্বাস নিয়ে কোন লাভ নেই।’

(ঢাকাটাইমস/১৬ অক্টোবর/এইচএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত