সৌম্য ও তাসকিনের দিন

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২০:৪১

বল হাতে পাঁচ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতেও দারুণ এক ইনিংস খেলেছেন সৌম্য সরকার। তার ৭১ রানের ইনিংসে ভর করেই ৬ উইকেট হারিয়েও দিন শেষে ১৯৬ রান সংগ্রহ করেছে খুলনা। ওদিকে বল হাতে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন ঢাকা মেট্রোর পেসার তাসকিন আহমেদ।

জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) টায়ার-১ এর ম্যাচের তৃতীয় দিনে আজ বুধবার (১৭ অক্টোবর) একাই রংপুরের শেষ ৫ ব্যাটসম্যানকে তুলে নিয়ে ৩১৪ রানে গুটিয়ে দেন পার্ট টাইম বোলার সৌম্য সরকার। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ৫ উইকেট পেলেন তিনি। ৪ উইকেট পেয়েছেন আল-আমিন হোসেন। এই দুই বোলারের তোপ সামলে ৬৭ রানে অপরাজিত থাকেন রংপুরের তানভির হায়দার। শেষ পর্যন্ত ১১ রানের লিড নিয়ে ৩১৫ রানে থামে রংপুরের প্রথম ইনিংস।

জবাব দিতে নেমে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৮ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় খুলনা বিভাগ। ওয়ান ডাউনে নেমে দলের হাল ধরেন সৌম্য সরকার। তাকে সঙ্গ দেন তুষার ইমরান। দুজনে মিলে ১০৬ রানের জুটিও গড়েন। কিন্তু ১১৪ বলে ৭ চারে ৭১ রান করে মাহমুদুল হাসানের বলে এলবি হয়ে সৌম্য বিদায় নিলে ভেঙে যায় এই জুটি।

সৌম্য বিদায় নেওয়ার পর খুব দ্রুতই বিদায় নেন আফিফ হোসেন (৩)। দিনের শেষ বলে যখন মাহমুদুল হাসানের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরেন নুরুল হাসান (৩), খুলনার সংগ্রহ তখন ৫ উইকেট হারিয়ে ১৮১ রান। হাতে ৫ উইকেট নিয়ে খুলনার লিড এখন ১৭০ রানের।

এদিকে এনসিএলের টায়ার-২ এর ম্যাচে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম পাঁচ উইকেট পেয়েছেন তাসকিন আহমেদ। তার বোলিং তোপে বগুড়ায় আজ বুধবার (১৭ অক্টোবর) নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২৩৬ রানে থামে চট্টগ্রামের ইনিংস। ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি পাওয়া চট্টগ্রামের শেষ ভরসা তাসামুলকেও (১১৬) ফেরান তাসকিন। ২ উইকেট করে পেয়েছেন শহিদুল ইসলাম ও আরাফাত সানি।

এদিকে জবাব দিতে নেমে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে নাঈম হাসানের বোলিং তোপে তোপে পড়ে ঢাকা মেট্রো। ৯৯ রানে ৫ উইকেট পেয়েছেন এই বোলার। মূলত নাঈমের বোলিং তোপেই ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে ঢাকা মেট্রো। হাতে ৪ উইকেট নিয়ে মেট্রোর লিড এখন ২৪২ রান।

মাত্র ১৪ রানেই নিজেদের প্রথম উইকেট হারিয়ে বসে ঢাকা মেট্রো। এরপর বলার মতো রান পেয়েছেন কেবল মেট্রোর ওপেনার সাদমান ইসলাম ও সৈকত আলী। ৮৮ বলে ৮ চার আর ১ ছক্কায় ৬২ করেছেন সাদমান। আর ২ চারে ৪০ রান করেছেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান সৈকত। ভালো শুরুর পরও ব্যক্তিগত ২৩ রান নাঈমের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফিরেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

 (ঢাকাটাইমস/১৭অক্টোবর/এইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত