ঘাটাইলে প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, পুরুষশূন্য এলাকা

ঘাটাইল(টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:১২ | প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:০৭

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে দুবাই প্রবাসী জুলহাসের স্ত্রী সাবিনার (২৬) মৃত্যুর ঘটনায় এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন ওই এলাকার পুরুষরা। এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা তার কোনো উত্তর এখনো মেলেনি। নিহতের কোনো অভিভাবক ছাড়াই রাতভর সালিশ, সকালে অর্ধঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় চলছে নানা আলোচনা, সমালোচনা।

এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার চান মিয়া ও একাধিক পরকীয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত হাসমত আলী।

জানা যায়, গত ৮ বছর আগে একই উপজেলার পোয়া কোলাহা গ্রামের সুলতান মাহমুদের (৭০) ছেলে জুলহাসের সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পইে বিদেশে চলে যান তিনি। একই সঙ্গে তার অপর ৩ ভাইও বিদেশে থাকেন। একমাত্র বৃদ্ধ বাবা ছাড়া বাড়িতে আর কোন পুরুষ মানুষ নেই।

জুলহাসের স্ত্রী সাবিনা ৫ বছরের শিশু কন্যা ছোঁয়া ও ২ বছরের শিশু কন্যা তোয়াকে নিয়ে আলাদা বাড়িতে বাস করতেন। প্রবাসী জুলহাসের অপর দুই ভাইয়ের বাড়ি পাশাপাশি থাকলেও তারাও প্রবাসে থাকায় বাড়িটি একেবারে জনমানবহীন।

একমাত্র জুলহাসের স্ত্রী থাকতেন ওই বাড়িতে। প্রতিবেশী নুরুল ইসলামের ছেলে হাসমত আলীকে (৩৫) সাবিনার সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পান একই গ্রামের আরশেদ আলীর ছেলে নাজমুল (৩৬)। পরে তিনি ঘরের বাইরে থেকে দরজা আটকে দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য চান মিয়াসহ স্থানীয়দের খবর দেন। পরে এ ঘটনায় রাতে  বিচার শালিশ করেন স্থানীয়রা। পরে সকালে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  করা হয়।

নিহতের স্বামী প্রবাসী জুলহাস মোবাইল ফোনে বলেন,  আমার স্ত্রী সাবিনা সম্পর্কে আমার জানা আছে। সে আত্মহত্যা করতে পারে না। আর আত্মহত্যা করলেও তার কারণ জানিয়ে চিরকুট লিখে যেত।

ঢাকাটাইমস/১৭অক্টোবর/প্রতিনিধি/ওআর

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত