অনুমতি না পেলেও সিলেট যাবেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০৮ | প্রকাশিত : ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ২২:১২

পূর্বঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২৩ অক্টোবর সিলেটে কর্মসূচির ঘোষণা দিলেও একদিন পিছিয়ে ২৪ অক্টোবর করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। অনুমতি না পেলেও সেদিন সিলেটে যাবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন ফ্রন্টের নেতারা।

আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এই তথ্য জানানো হয়। এই বৈঠকে ঐক্যফ্রন্টের সমন্বয় কমিটি ও স্টিয়ারিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। নাগরিক ঐক্যের নেতা মোবারক খানের ধানমন্ডির বাসায় বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ওই বৈঠক হয়। এতে জোটভুক্ত চার দলের নেতারা অংশ নেন। বৈঠকে নতুন কর্মসূচি হিসেবে ২৬ অক্টোবর পেশাজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে ব্রিফ করেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘সিলেটের ২৪ তারিখের কর্মসূচির অনুমতি এখনো পাওয়া যায়নি। কারণ হিসেবে তাঁদের জানানো হয়েছে, সেখানে ২৩ তারিখে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মসূচি রয়েছে। তাঁদের প্রত্যাশা এর মধ্যেই অনুমতি দেওয়া হবে। যদি অনুমতি দেওয়া না হয়, তাহলেও ঐক্যফ্রন্টের নেতারা ২৪ তারিখ সিলেট যাবেন।’

মোস্তফা মহসিন মন্টু সিলেট কর্মসূচির আয়োজন সম্পর্কে বলেন, ‘ওই দিন শাহজালাল (রহ.), শাহপরান (রহ.) ও জেনারেল এম এ জি ওসমানীর মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু হবে।’

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটি গঠন হয়েছে জানিয়ে মন্টু বলেন, শুক্রবারের এই বৈঠকে ঐক্যফ্রন্টের সমন্বয় কমিটি ও স্টিয়ারিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। সমন্বয় কমিটিতে প্রতিটি দল থেকে দুজন করে রাখা হয়েছে এবং একজন করে বিকল্প রাখা হয়েছে। আর স্টিয়ারিং কমিটিতে প্রতিটি দলের শীর্ষ নেতারা থাকবেন।

নতুন কর্মসূচি সম্পর্কে মন্টু বলেন, ২৬ অক্টোবর পেশাজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময় করা হবে। তবে এখনো স্থান ও সময় নির্ধারণ করা হয়নি। এ ছাড়া ২৭ অক্টোবর চট্টগ্রাম ও ৩০ অক্টোবর রাজশাহীর কর্মসূচির তারিখ অপরিবর্তিত রয়েছে।

শুক্রবারের এই বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ, মওদুদ আহমদ, নাগরিক ঐক্যর আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৩ অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাবে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সেদিন ফ্রন্টের নেতারা ৭ দফা ও ১১ লক্ষ্য উপস্থাপন করেন। এরপর আ স ম আবদুর রবের বাসায় ও বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বৈঠক থেকে ফ্রন্টের বিভিন্ন কর্মসূচি দেওয়া হয়।

ঢাকাটাইমস/১৯অক্টোবর/জিএম/আরকে

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত