‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক ব্যবসায়ীসহ তিনজন নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:৩৬
ফাইল ছবি

সারাদেশে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার গভীর রাত ও শনিবার ভোরে এসব বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে পাবনা, যশোর ও নারায়ণগঞ্জে। 

পাবনা সদর উপজেলার রাজাপুর গ্রামে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী টিপু শেখ (৪৫), যশোরের বেনাপোলে মাদক ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের বন্দুকযুদ্ধে আবু বক্কর ওরফে বাক্কার (৪৫) এবং নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ডাকাতদের দু’পক্ষের বন্দুকযুদ্ধে আবুল হোসেন নিহত হন।

আমাদের পাবনা প্রতিনিধি জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে পাবনা সদর উপজেলার রাজাপুর গ্রামে ক্যালিকো কটন মিল এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত টিপু শেখের বাড়ি সদর উপজেলার কবিরপুর গ্রামে।

র‌্যাব-১২ এর পাবনা ক্যাম্পের কমান্ডার রুহুল আমিন জানান, টিপু শেখ এলাকার কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগে করা আটটি মামলা রয়েছে।

র‌্যাব জানিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি রিভলবার, পাঁচটি গুলি ও ৭৭০ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় টিপু শেখের পরিবারের সদস্যদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আমাদের যশোর প্রতিনিধি জানান, যশোরের বেনাপোলের ছোট আঁচড়া শিকড়ি বটতলা তিনরাস্তার পাশে মাদক ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের বন্দুকযুদ্ধে নিহত আবু বক্কর বেনাপোল দিঘেরপাড় এলাকার মৃত নুর ইসলামের ছেলে। পোর্ট থানা পুলিশ শনিবার ভোর ছয়টার দিকে খবর পেয়ে তিনরাস্তার পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

বেনাপোল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান বলেন, ‘ভোরে দুইদল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলির সংবাদ শুনে ঘটনাস্থলে যাই। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে যান। নিহত আবু বক্কারের বিরুদ্ধে বেনাপোল ও শার্শা থানা মিলে ১২টি মামলা রয়েছে।’

তবে নিহতের শ্যালক হিরা ও মেয়ে সাথির দাবি, ‘আবু বক্কার একজন পার্টস ব্যবসায়ী৷ গত মঙ্গলবার বিকালে যশোর আর এন রোড থেকে সদর ফাঁড়ির পুলিশ তাকে আটক করে৷ এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন৷ শনিবার সকালে আমরা খবর পাই যে, ছোট আঁচড়া শিকড়ি বটতলা মোড়ের পাশে লাশ পড়ে আছে।’

আমাদের নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ডাকাতির মালামাল ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে ডাকাতদের দু’পক্ষের বন্দুকযুদ্ধে নিহত আবুল হোসেন সোনারগাঁও উপজেলার দক্ষিণপাড়া এলাকার সোনা মিয়ার ছেলে।

শুক্রবার রাত তিনটার দিকে উপজেলার এশিয়ান হাইওয়ের টেংরারটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন, টেংরারটেকে গোলাগুলির শব্দ শুনে ওই এলাকায় টহলরত পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আবুল হোসেনের লাশ উদ্ধার এবং ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ানশ্যুটার গান, এক রাউন্ড গুলি, একটি রামদা ও একটি টর্চলাইট জব্দ করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২০অক্টোবর/প্রতিনিধি/এমএবি/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত