সড়কের নিরাপত্তায় দরকার জনসম্পৃক্ততা: খোকন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:১৮

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ‘জনসম্পৃক্ততা’র ওপর গুরুত্বরোপ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন। বলেছেন, ‘আমাদের সড়ক ভয়ঙ্কর থেকে ভয়ঙ্কর অবস্থায় চলে যাচ্ছে। ঢাকার সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দুই সিটি করপোরেশন কাজ করে যাচ্ছে। তবে প্রাতিষ্ঠানিক উদ্যোগের পাশাপাশি জনসম্পৃক্ততা খুব বেশি দরকার।’

'আমাদের পথ আমাদের হাতেই নিরাপদ' প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সোমবার দুপুরে কর্মসূচি পালন করে ডিএসসিসি। নগর ভবনে এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে ডিএসসিসি মেয়র এ কথা বলেন।

ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মো. বিলাল সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর বিষয়ে সংস্থার নানা উদ্যোগ তুলে ধরেন। পাশাপাশি নাগরিকদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।

পরে নগর ভবনের সামনে থেকে সচেতনতামূলক একটি র‌্যালি বের হয় হয়।

মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, বর্তমান সড়কে সব চেয়ে আলোচিত হয়ে দাঁড়িয়েছে সড়কের নিরাপত্তা। কিছুদিন আগে শিক্ষার্থীরা এজন্য রাস্তায় নেমেছে।  সরকার তাদের দাবি মেনে নিয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের সড়ক ভয়ঙ্কর থেকে ভয়ঙ্কর অবস্থায় চলে যাচ্ছে। আমরা উত্তর ও দক্ষিণ সিটিসহ সবাই মিলে সড়কের নিরাপত্তার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এরই মধ্যে বেসরকারিভাবে বাস পরিচালনার জন্য আমাকে প্রধান করে ১০টি সংস্থার প্রধানকে নিয়ে কমিটি গঠন করে দেয়া হয়েছে। আমাদের কমিটি কাজ করে চলছে। আগামী দুই বছরের মধ্যে ঢাকা ও তার আশপাশের সড়কে শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করবো।

ঢাকা শহরে নতুন সাড়ে চার হাজার বাস নামানো হবে জানিয়ে ডিএসসিসি মেয়র বলেন, ‘ বাসগুলো যাতে অসুস্থ প্রতিযোগিতা করতে না পারে সে জন্য কাজ করবো। শুধু প্রাতিষ্ঠানিক উদ্যোগই সড়কের নিরাপত্তার জন্য যথেষ্ট নয়। এজন্য সবাইকে সচেতন হতে হবে।’ এসময় মেয়র দুর্ঘটনার জন্য ফুটওভারব্রিজ ব্যবহার না করাকেই বেশি দায়ী করেন।

অনুষ্ঠানে নাট্যব্যক্তিত্ব সারা যাকের বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি যানবাহন ও বাড়ছে। পাশাপাশি বাড়ছে দুর্ঘটনা। এ জন্য আমাদেরকে সচেতন হতে হবে। আমরা চাই ঢাকার পাশাপাশি দেশের সব সড়কগুলোও নিরাপদ হোক।

এসময় অন্যদের মধ্যে ডিএসসিসি সচিব শাহাবুদ্দিন খান, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা কমডোর জাহিদ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২২অক্টোবর/আরকে/জেবি)  

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত