টানা সাত জয় আর্সেনালের

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৪:৪৬ | প্রকাশিত : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:৫৪

নতুন কোচ উনাই এমেরির অধীনে টানা দুই ম্যাচ হেরে প্রিমিয়ার লিগ শুরু করেছিল আর্সেনাল। পরের গল্পটা ভিন্ন। টানা ৭ ম্যাচ জিতেছে দলটি। সর্বশেষ জয়টি এসেছে সোমবার ঘরের মাঠে লেস্টার সিটির বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে।

লেস্টারের বিপক্ষে আর্সেনালের জয়টি ছিল সবধরণের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা দশম জয়। ২০০৭ সালের পর যা তাদের সবচেয়ে ভালো রেকর্ড। সেবার টানা ১২ ম্যাচ জিতেছিল গানাররা।

এমিরেটস স্টেডিয়ামে শুরুতে আর্সেনালকে বেশ চেপে ধরে লেস্টার। এই অর্ধে অন্তত দুটি গোল পেতে পারত অতিথিরা। একবার কেলেচি ইহেনাচোর শট আরেকবার ম্যাগুয়ারের হেড দারুণ ক্ষীপ্রতায় ঠেকিয়ে দেন আর্সেনাল গোলরক্ষক বার্নড লেনো। তবে ৩২ মিনিটের মাথায় ঠিকই গোল আদায় করে নেয় লেস্টার। চিলওয়েলের শট হেক্টর বেয়েরিনের পায়ে লেগে জড়িয়ে যায় জালে। মিনিট দুয়েক বাদেই সমতায় ফিরতে পারত আর্সেনাল। কিন্তু গ্রানিত জাকার নেয়া ফ্রি-কিক আটকে দেন লেস্টার গোলরক্ষক ক্যাসপার স্মেইকেল। অবশেষে ৪৩ মিনিটে স্বাগতিক দর্শকদের আনন্দে ভাসান মেসুত ওজিল। বেয়েলিনের সঙ্গে বল দেয়া-নেয়া করে সুন্দর একটি গোল উপহার দেন সাবেক জার্মান প্লেমেকার।

বিরতির পর আর্সেনালের সঙ্গে আর কুলিয়ে উঠতে পারেনি লেস্টার। বদলি হিসেবে মাঠে নামা পিয়েরে-এমেরিক আবামেয়াং মাত্র তিন মিনিটের ব্যবধানে দুইবার বল পাঠিয়েছেন জালে। ৬৩ মিনিটে ডি-বক্সের বাঁ দিক থেকে দারুণ এক ক্রস দেন বেয়েরিন। আবামেয়াংকে কেবল বলে পা ছোঁয়াতে হয়েছে। তিন মিনিট পর দ্বিতীয়টি। বেয়েরিনের পাস ডি-বক্সে ওজিলকে বাড়ান আলেকজান্দার ল্যাকাজেতে। ওজিল ক্রস দেন আবামেয়াংকে। আলতো টোকায় তিনি বলটা জড়িয়ে দেন জালে। পরে আর গোল না পেলেও পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়ে আর্সেনাল। ম্যাচ শেষে ওজিলসহ অন্যান্য শিষ্যদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন এমেরি। বলেছেন, ‘আজ (সোমবার) দলের পারফরম্যান্স এবং ওজিলের পারফরম্যান্স খুবই ভালো ছিল। আমরা উন্নতির পথে এগোচ্ছি, হৃদয় দিয়ে খেলতে শুরু করেছি।’


এই জয়ে ৯ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট টেবিলের ৪ নম্বরে ওঠে এসেছে আর্সেনাল। তিনে থাকা চেলসির চেয়ে কেবল গোল ব্যবধানে পিছিয়ে আছে দলটি। প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার সিটি আর লিভারপুলের সঙ্গে গানারদের ব্যবধানটা মাত্র দুই পয়েন্টের। অনেকে তো মনে করছেন, এবার শিরোপা যুদ্ধের অন্যতম দাবিদার হয়ে ওঠতে পারে দলটি। তবে কোচ এমেরি এখনই ওসব বিষয়ে কথা বলতে নারাজ। ম্যাচ শেষে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের নীরব থাকতে হবে। লেস্টারকে হারানো জরুরি ছিল। কেননা পয়েন্ট টেবিলে ওদের অবস্থান আমদের পেছনে থাকলেও ব্যবধানটা খুব বেশি ছিলনা।’


(ঢাকাটাইমস/২৩অক্টোবর/এবিএ)

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত