রাব্বী আরেকটি সুযোগ ডিজার্ভ করে: মাশরাফি

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৫৫ | প্রকাশিত : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৫৩

গত ২১ অক্টোবর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় বাংলাদেশের ৩০ বছর বয়সী অলরাউন্ডার ফজলে মাহমুদ রাব্বীর। অভিষেকে ব্যাটিংয়ে নেমে চার বল খেলে শূন্য রান করে আউট হন তিনি। বোলিংয়ে তিন ওভার বল করে ১৬ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকেন রাব্বী। ফিল্ডিংয়ে একটি রান আউট করেছিলেন তিনি।

আগামীকাল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচের আগে তাই প্রশ্ন উঠছে রাব্বীকে কি আবার একাদশে রাখা হবে? না অন্য তার বদলে অন্য কাউকে একাদশে নেয়া হবে? টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা অবশ্য বলছেন রাব্বী আরেকটি সুযোগ ডিজার্ভ করে।

মঙ্গলবার চট্টগ্রামে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ‘দেখেন আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছি। করছি না যে তা না। রাব্বী আরেকটি সুযোগ ডিজার্ভ করে। আমি যদি রাব্বীর জায়গায় থাকতাম তাহলে প্রত্যাশা করতাম যে আমি সামনের ম্যাচে খেলব। বাদ বাকিটা তো নির্বাচক, টিম ম্যানেজম্যান্টের ব্যাপার। আমি রাব্বী হিসেবে বলছি। আমার অবশ্যই মনে হয় যে, সে একটা সুযোগ ডিজার্ভ করে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের আরো কিছু জায়গা আছে। যেমন আমাদের শান্ত বসে আছে। ওর ক্রিকেট খেলাটাও জরুরি। আরিফুল এশিয়া কাপ থেকে ধারাবাহিক টিমের সাথে রয়েছে। সুযোগ পায়নি। পুরোদমে অনুশীলন করে যাচ্ছে। ও কিন্তু একটা সুযোগ ডিজার্ভ করে। কারণ ও জানে যে পরে আরো কঠিন টুর্নামেন্ট আসলে ওকে কীভাবে দেখবে। আবু হায়দার রনি সাইড বেঞ্চে আছে। এটা ভালো। আমাদের আরেকটু ক্লিনিকাল হতে হবে। ম্যাচ না হেরে কীভাবে একজন-দুজন করে সুযোগ দিতে পারি। আর যেহেতু দলের সাথে আছে, ওই পরিবেশটা কিন্তু আছে। তারা যেন এসেই খুব দ্রুত পারফর্ম করতে পারে। তারা যেন তিন-চার ম্যাচ না নেয় পারফর্ম করতে সেই মানসিক প্রস্তুতি এবং শারীরিক প্রস্তুতিও নিশ্চিত করার চেষ্টা করছি।’

রাব্বীকে নিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি অবশ্যই মনে করি তার আরেকটি সুযোগ পাওয়া উচিৎ। একটা ম্যাচ দিয়ে বিচার করা কঠিন। যদি আপনি বলেন তাকে নেওয়া হলো কেন? তাহলে বলতে পারেন এটা একটা ভুল। কিন্তু নেওয়ার পর অবশ্যই আমি মনে করি তাকে সুযোগ দেওয়া উচিৎ। আবার সবার মতামত গুরুত্বপূর্ণ। একা দায়িত্ব নিয়ে তো আর খেলানোর সিদ্ধান্ত নেয়া যায় না। আর সে যে বলে আউট হয়েছে সেটাতেও দোষ দেয়ার কিছু নেই। ক্রিকেট খেলা দোষাদুষির জিনিস না। ব্যাকআপ আমরা নিকট অতীতে সব খেলোয়াড়কে করেছি। যতটুকু সম্ভব হয় করেছি। আমাদের বিলাসিতা করার সুযোগও নেই। ওটাও মাথায় রাখতে হবে।’

চট্টগ্রামের উইকেটে কেমন রান আশা করছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা? এ ব্যাপারে টাইগার দলপতি বলেন, ‘মিরপুরের উইকেট শুরুতে আনইভেন ছিল। কিন্তু একটা জুটির পর মিথুন-ইমরুল যেভাবে ব্যাটিং করছিল ওখান থেকে আরামসে তিনশ বা ৩১০-৩১৫ করা সম্ভব ছিল। কিন্তু আরেক পাশ থেকে যদি দেখেন সেটাও খুব ভালো হয়েছে। সাইফউদ্দিন রান করাটা আমাদের দলের জন্য স্বস্তি। এখানে উইকেট ফেয়ার থাকে। ফ্লাট হয়। আরো বেশি রান হয়। সেক্ষেত্রে কোনো অঘটন না হলে বড় রান আশা করছি। আমরা আগে ব্যাটিং করলে উইকেটে কতটুকু টার্ন হবে সেটা মেটার করবে। পরে ব্যাটিং করলে শিশির থাকবে। তখন আরো স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যাটিং করা যাবে। আরেকরকম চিন্তা। সবমিলিয়ে হেলদি পারফরম্যান্স আশা করছি। ব্যাটিং-বোলিং দুই সাইড থেকেই।’

(ঢাকাটাইমস/২৩ অক্টোবর/এইচএ/এসইউএল)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত