কানাডার কলেজে গাঁজা চাষের প্রশিক্ষণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৯:৫৩

বিশ্বের প্রথম শিল্পোন্নত দেশ হিসেবে বিনোদনের জন্য গাঁজা ব্যবহারে সম্প্রতি রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি দিয়েছে কানাডা৷ প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর লিবারেল পার্টির নির্বাচনী প্রচারের প্রতিশ্রুতি হিসেবে গত সপ্তাহে এ স্বীকৃতি দেয়া হয়৷

দেশটির সরকারের আশা, এ স্বীকৃতি দিলে অপ্রাপ্তবয়স্কদের হাত থেকে এই মাদক দূরে রাখা সম্ভব হবে, কমানো যাবে এ সংক্রান্ত অপরাধের হারও৷

ওন্টারিওর কলেজটিতে গাঁজার ল্যাব জলবায়ু-নিয়ন্ত্রিত৷ কাঁটাতারের বেড়া, তালাবদ্ধ দরজা দিয়ে আবদ্ধ কক্ষে ৫০টি গাঁজার গাছ রাখা আছে৷ শিক্ষার্থীদের এখানে গাঁজার চাষ, সুরক্ষা, বারকোড দিয়ে ট্র্যাক, রাসায়নিক পরীক্ষা, রোগের চিকিৎসা, সবই শেখানো হয়৷

গাঁজা চাষের ব্যবসায়িক দিকও বিবেচনায় রাখছেন প্রশিক্ষকরা৷ গাঁজা স্বীকৃতি পেলে এর যে বিশাল বাজার তৈরি হবে, তা কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, কী পরিমাণ শ্রম ও খরচে কী পরিমাণ গাঁজা উৎপাদন সম্ভব, এ সবকিছুই শেখানো হবে এ কলেজে৷

ডয়েচে ভেলে জানাচ্ছে, আইনি স্বীকৃতির পর বাজারে পর্যাপ্ত গাঁজার সরবরাহ না থাকলে কালোবাজারে বিক্রি বেড়ে যাওয়ার আশংকা করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী৷ এ সমস্যার সমাধানে দ্রুতই ভালো প্রজাতির গাঁজা বাজারে আনতে দক্ষ মানুষ তৈরি করতে চায় নিয়াগারা কলেজ৷

ভালো গাঁজা উৎপাদনে প্রয়োজন সঠিক পরিচর্যা৷ তাই ল্যাবে কিভাবে আলো নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে উৎকৃষ্ট প্রজাতির গাঁজার উৎপাদন করা যায়, সে ব্যাপারে প্রশিক্ষণ দেয়া হয় শিক্ষার্থীদের৷ এই প্রকল্পের দায়িত্বে আছেন বিল ম্যাকডোনাল্ড৷

কানাডার এমন পদক্ষেপের সুযোগ নিতে এগিয়ে আসছে নামিদামি বিভিন্ন ব্র্যান্ডও৷ ওয়ালমার্টের ক্যানাডিয়ান ইউনিট এবং নানা পানীয় ও মদ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গাঁজা দিয়ে প্রস্তুত খাবার ও পানীয় বাজারজাত করার পরিকল্পনা করেছে৷

(ঢাকাটাইমস/২৩অক্টোবর/এসআই)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত