জাতিসংঘ মানবাধিকার পুরস্কার পেলেন আসমা জাহাঙ্গীর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০১৮, ২১:০৯ | প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৮, ২১:০১

চলতি বছর জাতিসংঘ মানবাধিকার পুরস্কারের জন্য পাকিস্তানের প্রয়াত খ্যাতনামা আইনজীবী ও মানবাধিকারকর্মী  আসমা জাহাঙ্গীরের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তার সঙ্গে আরও তিনজনকে এই পুরস্কার দেয়া হচ্ছে।

ডনি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভাপতি মারিয়া ফারনান্দা ইসপিনোসা গারসেস তার টুইটারে শুক্রবার এই ঘোষণা দেন।

তিনি টুইটে লিখেন, ‘২০১৮ সালের জাতিসংঘ মানবাধিকার পুরস্কারের জন্য আপনাদের নাম ঘোষণা করছি।’ আসমা জাহাঙ্গীর ও অন্যান্যদের নাম ঘোষণা করে তিনি বলেন, ‘আপনাদের কাজ আমাদের সবার জন্য অনুপ্রেরণা।’

আসমা জাগাঙ্গীর ছাড়াও তানজানিয়ার মানবাধিকারকর্মী রেবেকা গুইমি, ব্রাজিলের প্রতিথযশা আইনজীবী জোয়েনিয়া ওয়াপিক্সানা এবং আইয়ারল্যান্ডের মানবাধিকার সংগঠন ফ্রন্ট লাইন ডিফেন্ডার্স এই পুরস্কার পেয়েছেন।

আসমা জাহাঙ্গীরের পাকিস্তানের আরও চারজন নারী জাতিসংঘের এই সম্মানজনক পুরস্কার পেয়েছিলেন। তারা হলেন, বেগম রা’না লিয়াকত আলি খান(১৯৭৮), বেনজির ভুট্টো(২০০৮) এবং মালালা ইউসুফজাই(২০১৩)।

আসমা জাহাঙ্গীর চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে  হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে লাহোরের একটি হাসপাতালে ৬৬ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

স্পষ্ট কথাবার্তা এবং মানবাধিকার বিষয়ে আপসহীন অবস্থানের জন্য সুবিদিত ছিলেন এই মানবাধিকারকর্মী। পাকিস্তানের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তার ভূমিকা উজ্জ্বল।

১৯৫২ সালের জানুয়ারিতে লাহোরে জন্ম নেন আসমা জাহাঙ্গীর। কিনাইআর্ড কলেজ থেকে স্নাতক এবং পাঞ্জাব ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। এরপর তিনি লাহোর হাইকোর্টে যোগ দেন। পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়শনের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি।

২০০৭ সালে পাকিস্তানে আইনজীবীদের ঐতিহাসিক আন্দোলেন সক্রিয় ভূমিকা ছিল আসমা জাহাঙ্গীরের। ওই আন্দোলনে অংশ নেয়ার জন্য তাকে গৃহবন্দী করা হয়। পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশনের সহপ্রতিষ্ঠাতা ছিলেন তিনি।

(ঢাকাটাইমস/২৬অক্টোবর/এসআই)

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত