রূপগঞ্জে গাজীর সমাবেশ

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ২২:০২

নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য বীরপ্রতীক গোলাম দস্তগীর গাজীর পক্ষে বিশাল সমাবেশ হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া এলাকায় সরকারি মুড়াপাড়া কলেজ মাঠে এ সমাবেশ হয়। এতে লাখো মানুষের সমাগম ঘটে।

দুপুর ১২টার পরপরই আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা আসতে শুরু করেন। ব্যানার, ফেস্টুনসহ বিশাল বিশাল মিছিল নিয়ে জনসভাস্থলে যোগ দেন তারা। নেতাকর্মীদের স্লোগানে মুখরিত হয়ে পড়ে পুরো মুড়াপাড়া। ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই পুরো মুড়াপাড়া মাঠসহ পাশের স্টেডিয়াম লোকারণ্য হয়ে উঠে।

জনসভায় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, শ্রমিক লীগ, মহিলালীগ, যুবমহিলা লীগসহ অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ লক্ষাধিক লোকের সমাগম ঘটে। এছাড়া নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরাও সংহতি প্রকাশ করেছেন।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখেন গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক।

সরকার দেশের উন্নয়নে অনেক কাজ করেছে। এর ধারাবাহিকতা রক্ষায় তিনি আগামী নির্বাচনে আবারো আওয়ামী লীগকে জয়ী করার আহ্বান জানান তিনি।
এ সময় বিএনপির শাসনামলের সমালোচনা করে দস্তগীর গাজী বলেন, ‘খালেদা জিয়া একজন দুর্নীতিবাজ প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তিনি যতবারই ক্ষমতায় গেছেন ততবারই দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ান হয়েছেন। খালেজা জিয়া ও তার পুত্র তারেক জিয়া বাংলাদেশে রাজনীতিকে দূষণ করেছেন। তারাই জঙ্গিদের দিয়ে সাধারণ মানুষকে হত্যা করিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। সাধ্যমতো রূপগঞ্জবাসীর উন্নয়ন করেছি। রূপগঞ্জের লোকজন এক সময় এলাকায় বসবাস করতে পারেনি। বঙ্গবন্ধুর ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পোস্টার টানাতে পারেনি। আমিই প্রথম জনগণকে নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে রাজনীতি শুরু করি।’

উন্নয়ন নিয়ে গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, ‘ভুলতা ফ্লাইওভার, শীতলক্ষ্যা সেতুসহ প্রায় ৩২০০ কোটি টাকার উন্নয়নে আজ রূপগঞ্জ উপজেলা একটি মডেল উপজেলা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। শেখ হাসিনার কারণেই এ উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে।’

জনসভায় সভাপতিত্ব করেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা। প্রধান বক্তা ছিলেন তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আলম নিলা, প্রচার সম্পাদক মানজারী আলম টুটুল, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছ, ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভুইয়া, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর হোসেন ভুইয়া, আওয়ামী লীগ নেতা মতিউর রহমান আকন্দ, এমায়েত হোসেন, জায়েদ আলী, মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন, আবুল হোসেন, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি কামরুল হাসান তুহিন, সাধারন সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান শাহিন, শাহরিয়ার পান্না সোহেল (ভিপি), স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মাহাবুবুর রহমান মেহের, সাধারন সম্পাদক নাঈম ভুইয়া, উপজেলা মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক শিলা রানী পাল, ইমন হাসান খোকন, যুব মহিলা লীগের ফেরদৌসী আক্তার রিয়া, সেলিনা আক্তার রিতা, শ্রমিক লীগের বেলায়েত হোসেন, আবু জাবের বাবুল, রফিকুল ইসলাম রফিকসহ আরো অনেকে।

ঢাকাটাইমস/০৮নভেম্বর/প্রতিনিধি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত