নয়াপল্টনে পুলিশ মার খেয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:০৩

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে সংঘর্ষের সময় পুলিশের অবস্থান নমনীয় ছিল বলে দাবি করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তার দাবি, পুলিশ সেখানে মার খেয়েছে, কিন্তু মারমুখো হয়নি।

বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রির তৃতীয় দিনে গতকাল বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে নেতা-কর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এই ঘটনার জন্য বিএনপি এবং পুলিশ একে অপরকে দায়ী করছে। দুই পক্ষই একে অপরের প্রতি বিনা উস্কানিতে হামলার অভিযোগ করেছে।

এরপর সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পুলিশ নিরব ভূমিকা পালন করেছে, মার খেয়েছে। পুলিশের মারমুখী আচরণ ছিল না। মারমুখী আচরণ থাকলে ১৬ পুলিশ আহত হতো না। আমরা মনে করি, পুলিশ অত্যন্ত ধৈর্যের সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবেলা করছে এবং আহত হয়েছেন।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের অভিযোগ, বিএনপি ভোটে এসেছে নির্বাচন বানচালের জন্য। আর নয়াপল্টনের ঘটনা এরই একটি টেস্টকেস। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও বললেন একই কথা।

‘আমরা মনে করি এটা পরিকল্পিতভাবে হয়েছে। যখন দেশ একটি সুন্দর নির্বাচনের দিকে যাচ্ছে, নির্বাচন কমিশন যখন সিডিউল ঘোষণা করেছে, মানুষ যখন একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের অপেক্ষায় রয়েছে, সেই সময়ে এটি পরিকল্পিতভাবে ঘটানো হয়েছে।’

এই ঘটনায় ১৩ জন পুলিশ ও তিন আনসার সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানান মন্ত্রী। বলেন, আগুন দেয়া হয়েছে পুলিশের দুটি নতুন গাড়িতে।

‘একটি এপিসি (আর্মার্ড পার্সোনেল ক্যারিয়র-সাজোয়া যান) ভেহিক্যাল সেখানে ছিল, সেই এপিসি ভেহিক্যালেও তারা আগুন ধরানোর চেষ্টা করে। পুলিশ সক্রিয় থাকায় এপিসি  ভেহিক্যালটা রক্ষা পায়।’

এ ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের ভিডিও ফুটেজ দেখে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান মন্ত্রী।
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অভিযোগ, বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির দুই নেতা মির্জা আব্বাস ও আখতারুজ্জামান মনোনয়ন ফরম জমা দিতে আসার পর দুই পক্ষে মারামারি বাধে।

তখন যখন পুলিশ বলছিল, রাস্তার একটি পাশ খুলে দেয়ার জন্য। সে সময় পুলিশের ওপর আক্রমণ করা হয়।
ধানমন্ডিতেও আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের সরানোর উদ্যোগ কেন নেয়া হয়নি- এই প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, ‘এ রাস্তাটি গুরুত্বপূর্ণ, আর ধানমন্ডিরটা বাইলেন, একটা রেসিডেন্সিয়াল এলাকায় ঢোকার জন্য সেই রাস্তা। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী সেই রাস্তাটিও খালি রাখতে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে।’

(ঢাকাটাইমস/১৪নভেম্বর/এমএম/ডব্লিউবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত