বরিশাল-২ আসনে বিএনপির মনোনয়ন জমা দিলেন দুলাল হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:৩১

বরিশাল-২ (উজিরপুর-বানারীপাড়া) আসনে বিএনপির মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য দুলাল হোসেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন তরুণ এই রাজনীতিক।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই আসনে বিএনপির মনোনয়নের দৌড়ে অর্থাৎ তৃণমূলের নেতাকর্মীদের কাছে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রয়েছেন ছাত্রদলের সাবেক এই সহসভাপতি। দলের দুর্দিনে নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়ে দলকে শক্তভাবে আগলে রেখেছেন এই নেতা।

সূত্র জানায়, তরুণ নেতৃত্ব হিসেবে স্থানীয় নেতাকর্মীর কাছে বেশ জনপ্রিয় ‍দুলাল হোসেন। দলও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নবীন-প্রবীণ সমন্বয়ের বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই দুলাল হোসেনের মনোনয়ন পাওয়া এখন সময়ের দাবি বলে মনে করছেন অনেকে।

ছাত্ররাজনীতি থেকেই এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থেকেছেন দুলাল হোসেন। এখন পুরোপুরি এলাকার মানুষের পাশেই সময় দেন। দলের বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নেও কাজ করছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে দুলাল হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আল্লাহর রহমতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে। আমি আশাবাদী দল আমাকে বিমুখ করবে না। তবে মনোনয়ন দেয়ার মালিক দলের হাইকমান্ড। আমি দলের জন্য কাজ করছি। মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থেকেছি। দলের একজন কর্মী হিসেবে কাজ করছি।

দীর্ঘ ২৯ বছরের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন তার। ১৯৮৯ সালে ঢাকা কলেজে এইচ. এস. সি. তে অধ্যয়নকালে স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয় অংশ গ্রহণের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে কাজ শুরু করেন তিনি।

এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে নিয়মিত ভাবে ছাত্রদলের রাজনীতিতে যুক্ত হন দুলাল হোসেন। ১৯৯৩ সালে ঢাবির মুজিব হলের সমাজসেবা সম্পাদক, ১৯৯৬ সালে সাংগঠনিক সম্পাদক, ১৯৯৭ সালে যুগ্ম আহবায়ক, ২০০১ সালে ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহবায়ক কমিটির সদস্য হন। ২০০৩ সালে  সাংগঠনিক সম্পাদক ও ২০০৫ সালে যুগ্ম আহবায়ক হন। সর্বশেষ ২০১০ সালে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি হন। ২০১২ সালে ছাত্ররাজনীতির ইতি টানেন। এরপর মূল দলের সঙ্গে ‍যুক্ত হয়ে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

ছাত্র রাজনীতি থেকে অবসরের পর বিএনপির ৬ষ্ঠ কাউন্সিলে বেগম খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান তাকে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মনোনীত করেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগ থেকে দ্বিতীয় শ্রেণীতে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। বর্তমানে মালয়েশিয়ার লিমকক উইং বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজনেস ম্যানেজমেন্ট এ পি এইচ ডি গবেষণায় অধ্যয়নরত আছেন।

(ঢাকাটাইমস/১৬নভেম্বর/এমএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত