শ্রীলঙ্কায় সাংবিধানিক সঙ্কট

পার্লামেন্টে এবার মরিচের গুঁড়া; পুলিশের নজিরবিহীন হস্তক্ষেপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪১ | প্রকাশিত : ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪০

কিছুতেই কাটছে না দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কার রাজনৈতি ও সাংবিধানিক সংকট। গত কয়েকদিন ধরে চলা এই সংকটের মধ্যে পার্লামেন্টে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এবার পার্লামেন্টে মরিচের গুঁড়া ছোড়া হয়েছে। এছাড়া চেয়ার ছুড়ে মারার ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন কয়েকজন পার্লামেন্ট সদস্য। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে  প্রথমবারের মত  পার্লামেন্টের ভিতরে প্রবেশ করে নজিরবিহীন হস্তক্ষেপ করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুই দলের সংসদ সদস্যদের মধ্যে হাতাহাতির পরদিন শুক্রবার এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটে।

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইত্রিপালা সিরিসেনা গত ২৬ অক্টোবর রনিল বিক্রমাসিংহেকে সরিয়ে মাহিন্দা রাজাপাক্ষেকে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করলে সংকট শুরু হয়। বিক্রমাসিংহে এ সিদ্ধান্ত মেনে নেননি। গত বুধবার পার্লামেন্টে এ নিয়ে আয়োজিত অনাস্থা ভোটে হেরে যান রাজাপাক্ষে। পরদিন বৃহস্পতিবার আরেক ভোটাভুটি হয়। সেদিন এ নিয়ে সংসদ সদস্যদের মধ্যে ব্যাপক হাতাহাতি ও ধাক্কাধাক্কি হয়।

তবে গতকাল একই বিষয় নিয়ে বিতর্ক শুরু হলে সংসদ সদস্যরা পরস্পরের দিকে মরিচের গুঁড়া ছুড়তে শুরু করেন। একপর্যায়ে আছাড় মেরে মেরে সংসদের চেয়ার ও টেবিল ভেঙে সেগুলো লাঠি হিসেবে ব্যবহার করে মারামারিতে লিপ্ত হন সংসদ সদস্যরা। ছুঁড়ে মারা মরিচের গুঁড়ার কারণে কয়েকজনকে ঘন ঘন চোখ ডলতেও দেখা গেছে।  শেষ পর্যন্ত সংসদ অধিবেশন আগামী ১৯ তারিখ পর্যন্ত মুলতবি ঘোষণা করেন স্পিকার। পুলিশের সহায়তায় স্পিকারকে অধিবেশনস্থল ত্যাগ করতে হয়।

ঢাকা টাইমস/১৭নভেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত