সাংবাদিকদের হুমকি দিলেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১০:২৫

সম্প্রতি হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলনের সময় এক সাংবাদিকের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেই ঘটনার পর সিএনএনের ওই সাংবাদিকের প্রবেশ পাস স্থগিত করা হয়। এ ঘটনায় ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা করে সিএনএন। সেই ঘটনার পর এবার সাংবাদিকদের হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। যদি সংবাদ সম্মেলনের সময় সাংবাদিকরা নিয়ম মেনে না চলে তাহলে সংবাদ সম্মেলন ত্যাগ করবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

সিএনএনের সাংবাদিক জিম অ্যাকোস্টাকে হোয়াইট হাউসের প্রবেশ পাস ফিরিয়ে দেয়ার আদেশ দিয়েছে ওয়াশিংটনের একটি আদালত। তারপরই এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ট্রাম্প। 

ট্রাম্প বলেন, মানুষের ভালো আচরণ থাকতে হবে। এবং নিয়মনীতি মানতে হবে। যদি তারা নিয়ম না মানে তাহলে আমরাও আদালতে যাবো এবং জয়ী হব। যদি সেটিও না শোনে তাহলে আমি স্থান ত্যাগ করবো তাতে তারা খুশি হবেন না।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনি তিনটি বা চারটি প্রশ্ন গ্রহণ করতে পারবেন না এবং শুধু দাঁড়াতে বা বসতে পারবেন না। আপনার শালীনতা অনুশীলন করতে হবে।

স্থানীয় সময় গত বুধবার (৭ নভেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনের সার্বিক বিষয় নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসেন ট্রাম্প। সংবাদ সম্মেলনে সিএনএনের হোয়াইট হাউসবিষয়ক প্রধান প্রতিবেদক জিম অ্যাকোস্টা অভিবাসী ইস্যুতে ট্রাম্পকে প্রশ্ন ছোড়েন। যা থেকেই মূলত উভয়ের মধ্যে বিতর্কের সূত্রপাত হয়। ট্রাম্প ওই সাংবাদিককে ভয়ানক বলে উল্লেখ করেন। ওই বাদানুবাদের সূত্র ধরেই অ্যাকোস্টার পাস বাতিল করা হয়।  এ বিষয়ে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্স বলেন, এক সাংবাদিকের পাস বাতিল করা হয়েছে। কারণ তিনি এক নারীর গায়ে হাত তুলেছেন। হোয়াইট হাউস কখনই এ ধরনের আচরণ বরদাশত করে না।

হোয়াইট হাউসের সংবাদ সম্মেলনের ভিডিওতে দেখা যায়, জিম অ্যাকোস্টা অভিবাসী ইস্যুতে ট্রাম্পকে প্রশ্ন ছুড়লে তিনি বলেন, ‘আমাকে রাষ্ট্র চালাতে দিন, আপনি সিএনএন চালান এবং আপনি যদি এটি করতে পারেন তা হলে আপনার মানদণ্ড অনেক ওপরে উঠবে’। এর পর অ্যাকোস্টা আরেকটি প্রশ্ন করার ইচ্ছা পোষণ করলে ট্রাম্প বলেন, ‘যথেষ্ট হয়েছে (দ্যাটস্ ইনাফ)’।

এর পর অ্যাকোস্টার হাত থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করা হয়। এ সময় ট্রাম্প তাকে ‘অভদ্র’ ও ‘ভয়ঙ্কর’ ব্যক্তি বলে আখ্যা দিয়ে বলেন, ‘মাইক্রোফোন রাখুন, সিএনএনকে অবশ্যই লজ্জিত হওয়া উচিত… আপনার মতো ব্যক্তি তাদের জন্য কাজ করে। আপনি একজন অভদ্র, ভয়ঙ্কর ব্যক্তি। আপনার সিএনএনের জন্য কাজ করা উচিত নয়’।

ঢাকা টাইমস/১৭নভেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত