বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৯ | প্রকাশিত : ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ১১:১২
বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে চলছে মনোনয়নপ্রত্যাশদের সাক্ষাতকার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার গ্রহন দলটির গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুরু হয়েছে। রবিবার সকাল নয়টায় দলের মনোনয়ন বোডের সদস্যদের উপস্থিতিতে এ সাক্ষাৎকার শুরু হয়।  সকাল থেকে দলীয় কার্যালয়ের সামনে দেখা গেছে নেতাকর্মীদের উপচে পড়া ভিড়।

রংপুর বিভাগের পঞ্চগর-১ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী সেলিম শেখের সাক্ষাৎকার গ্রহণের মধ্যদিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়।  

জানা যায়, মনোনয়ন বোর্ডে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার,  লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) মাহবুবুর রহমান, ড. আব্দুল মঈন খান, গয়েশ^র চন্দ্র  রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী উপস্থিত রয়েছেন। 

সাক্ষাৎকারের প্রথম দিন সকাল ৯টা থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত রংপুর বিভাগ এবং দুপুর আড়াইটা থেকে রাজশাহী বিভাগের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে।
সাক্ষাৎকারের সময়সূচি অনুযায়ী, আগমীকাল সোমবার সকাল ৯টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত বরিশাল বিভাগ, দুপুর আড়াইটায় খুলনা বিভাগ, মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিভাগ, দুপুর আড়াইটা থেকে বৃহত্তর  কুমিল্লা ও সিলেট বিভাগ, বুধবার সকাল ৯টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত ময়মনসিংহ ও ফরিদপুর বিভাগ, দুপুর আড়াইটা  থেকে ঢাকা বিভাগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে।

বিএনপি মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে ফরম বিক্রি ও জমা শুরু হয় ১২ নভেম্বর, যা শেষ হয় শুক্রবার রাতে। পরে শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন রুহুল কবির রিজভী। এসময় তিনি জানান, এবার মোট ৪ হাজার ৫৮০টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে। তবে জমার সংখ্যাটা তিনি পরে জানাবেন। 

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতের সময় আবেদন ফরম জমাদানের রসিদ অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে। মনোনয়নপ্রত্যাশীরা তাদের সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে আসতে পারবেন না। সমর্থকদের সঙ্গে করে আনলে তা অসদাচরণ বলে গণ্য হবে।

তিনি বলেন, শুধু মহানগর ও জেলাধীন নির্বাচনী এলাকার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতের সময় ওই মহানগর ও জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত থাকবেন। সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকরাও উপস্থিত থাকবেন। মনোনয়নপ্রত্যাশীরা তাদের সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে আসতে পারবেন না। সমর্থকদের সঙ্গে করে আনলে তা অসদাচরণ বলে গণ্য হবে।

ঢাকাটাইমস/১৮নভেম্বর/বিইউ/ওআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত