চার বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা, যুবক গ্রেপ্তার

মাগুরা প্রতিনিধি
 | প্রকাশিত : ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ২০:০৮
ফাইল ছবি

মাগুরার শালিখা উপজেলার পুখরিয়ায় মনির হোসেন নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে চার বছরের এক শিশুকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার এই ঘটনা ঘটে। শিশুটি বর্তমানে মাগুরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

অভিযুক্ত মনির আড়পাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চৌকিদার মোহন মিয়ার ছেলে। ঘটনাটি জানার পর এলাকার মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। পরে রবিবার দুপুরে মনিরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

কিন্তু পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযুক্তের পক্ষ নেয়ার অভিযোগ করেছে শিশুটির পরিবার। তারা জানান, ঘটনার দিনে শুক্রবারই অভিযুক্ত মনিরকে আটক করে পুলিশ। কিন্তু তাকে ১২ বছরের শিশু দেখিয়ে ছাড়িয়ে আনে স্থানীয় প্রভাবশালীরা।  

শিশুটির ফুফু হাসিনা খাতুন বলেন, চার বছর আগে জন্মের মাত্র দুই মাস পর আরেকটি বিয়ে করে সেখানে চলে যান শিশুটির মা। সে দাদী ও ফুফুর কাছে থাকে। শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় বাড়িতে কেউ না থাকায় মনির শিশুটিকে চকোলেটের লোভ দেখিয়ে বাড়ির পাশে একটি গোয়াল ঘরে নিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ধর্ষণের চেষ্টা করে। শিশুটির গোঙ্গানীর শব্দে হাসিনা খাতুন সেখানে গেলে মনির পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিশুটি অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মনির বিভিন্ন বাড়িতে কামলা হিসেবে কাজ করে। তার চরিত্র মোটেই ভাল নয়। তার নামে এলাকায় অনেক খারাপ কাজের অভিযোগ আছে।    

শালিখা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা অনিতা মল্লিক জানান, এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনা যেন কেউ আর না ঘটাতে পারে সেজন্য আমরা এ ঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই।

মাগুরা সদর হাসপাতালের গাইনি কনসালটেন্ট শামসুন্নাহার লাইজু জানান, শিশুটিকে জোর করে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। তবে এখন সে সুস্থ আছে।  

শালিখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। মনিরকে গেপ্তারও করা হয়েছে। তার বয়স প্রমাণের জন্য মেডিকেল পরীক্ষা করিয়ে উপযুক্ত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ঢাকা টাইমস/১৮ নভেম্বর/প্রতিনিধি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত