গভীর সমুদ্রে সামরিক উপস্থিতি অব্যাহত রাখবে ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:০১

জাতীয় স্বার্থ রক্ষার লক্ষ্যে গভীর সমুদ্রে সামরিক উপস্থিতি অব্যাহত রাখবে ইরান। এ বিষয়টি নিশ্চিত করে ইরানের সেনাবাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল মাহমুদ মুসাভি বলেন, জাতীয় স্বার্থ রক্ষার জন্য সেনাবাহিনীর নৌবহরগুলোর উপস্থিতি জরুরি হওয়ায় গভীর সমুদ্রে এসব বহরের উপস্থিতি অব্যাহত থাকবে।

বার্তা সংস্থা ইরনাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ইরানের একটি শক্তিশালী নৌবাহিনী রয়েছে বলে তাকে গভীর সমুদ্রে নিজের উপস্থিতি বজায় রাখতে হবে; তা না হলে অন্যরা ইরানের অনুপস্থিতির সুযোগ নেবে। প্রয়োজনে আটলান্টিক মহাসাগরে আবারও নৌবহর পাঠাবে ইরান। খবর পার্সটুডের।

২০১৬ সালের নভেম্বরে ইরানের একটি নৌবহর আটলান্টিক মহাসাগরে টহল দিয়েছিল। গভীর সমুদ্রে চলাচলকারী বাণিজ্যিক জাহাজ ও ট্যাংকারের  নিরাপত্তা রক্ষার লক্ষ্যে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সাগরে টহল জোরদার করেছে ইরানের নৌবাহিনী।

এ সম্পর্কে মুসাভি বলেন, ১৯৭৯ সালে ইসলামি বিপ্লবের পর থেকে ‘নির্মম নিষেধাজ্ঞা’ সত্ত্বেও ইরান সামরিক দিকে দিয়ে বিস্ময়কর সাফল্য অর্জন করেছে। নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ইরানের সামরিক অগ্রগতি রোধ করা যায়নি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ইরানের পরমাণু সমঝোতা চুক্তি থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর দুই দফা কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ইরানের অর্থনৈতিক অবস্থাকে দুর্বল করে দিতে এবং দেশটির শাসকদের পতন ঘটাতে এমন কঠোর পরিকল্পনা নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে এমন নিষেধাজ্ঞায় তাদেরকে দুর্বল করা যাবে না বলে জানিয়েছে ইরান।

ঢাকা টাইমস/১৯নভেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত