মহেশখালীতে `বন্দুকযুদ্ধে’ জলদস্যু নিহত

কক্সবাজার প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:১৬

কক্সবাজারের মহেশখালীতে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক জলদস্যু নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ২টি দেশীয় বন্দুক, ৮ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৬টি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার ভোরে সোনাদিয়া দ্বীপের প্যারাবনে এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধ হয়।

নিহত জলদস্যুর নাম আবুল হাসান মানিক (৩০)। তিনি কুতুদিয়া উপজেলার করলা পাড়া গ্রামের লেদু মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব ও থানা সূত্রে জানা যায়, মহেশখালীর সোনাদিয়া দ্বীপে একদল জলদস্যু সাগরে দস্যুতার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে‍ র‌্যাব-৭ কক্সবাজার সিপিসি একটি টিম ভোর সাড়ে ৪টার দিকে অভিযানে নামে। জলদস্যুরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছুটতে ছুটতে গহীণ ঝাউবনের দিকে চলে যায়। এ সময় র‌্যাব ও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। অন্য জলদস্যুরা পালিয়ে গেলেও আবুল হাসান মানিক গুলি লেগে আহত অবস্থায় পড়ে থাকেন। ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব ২টি দেশীয় বন্দুক,৮টি তাজা কার্তুজ ও ৬টি গুলির খোসাসহ আহত মানিককে উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে সকাল ৮টা ২০মি: সময়ে আহত দস্যু মানিককে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। 

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নিহত দস্যু মানিকের লাশ মহেশখালী থানায় হস্তান্তর করা হয়।

মহেশখালীর ওসি প্রভাষ চন্দ্রধর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, থানার এসআই পংকজ লাশের সুরত হাল রির্পোট তৈরি শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছেন।

ঢাকাটাইমস/১৯নভেম্বর/প্রতিনিধি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত