দীপবীরের বিয়ে নিয়ে বিতর্ক

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:৫৩

ইতালির কোমো লেকের ধারে রাজকীয় এক প্রাসাদে রূপকথার বিয়ে সেরেছেন বলিউডের সুপারস্টার জুটি দীপিকা পাডুকোন ও রণবীর সিং। ১৪ ও ১৫ নভেম্বর দুই দফা বিয়ের অনুষ্ঠান সেরে দেশে ফিরেছেন নবদম্পতি। শ^শুরবাড়িতেও গেছেন দীপিকা। ২১ নভেম্বর বেঙ্গালুরে এবং ২৮ নভেম্বর মুম্বাইয়ে তাদের রিসেপশন পার্টি। এখন চলছে তারই প্রস্তুতি।

কিন্তু এরই মধ্যে দীপিকা-রণবীরের বিয়ের ছন্দে তাল কাটল। তুমুল বিতর্ক শুরু হয়েছে তাদের বিয়ের প্রথা নিয়ে। ১৪ নভেম্বর কঙ্কনি প্রথায় তারা প্রথম বিয়ে করেন। পরের দিন সিন্ধ্রি প্রথা মেনে পাঞ্জাবি রীতিতে আবার বিয়ে হয় তাদের। কিন্তু গোল বেঁধেছে দীপিকা-রণবীরের বিয়ের আনন্দ কারাজ অনুষ্ঠান নিয়ে।

কী সেই অনুষ্ঠান? বিয়ের এই প্রথা পালন করা হয় গুরুদ্বারে। সকালে অথবা বিকালে। গুরু গ্রন্থ সাহিবকে সামনে রেখে পাশাপাশি বসেন বর এবং কনে। বর বসেন ডানে এবং কনে বসেন বায়ে। কিন্তু দীপিকা-রণবীরের বিয়ের ক্ষেত্রে এই প্রথা গুরুদ্বারে পালন করা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

ইতালির ভারতীয় শিখ সম্প্রদায়ের সভাপতি সুখদেব সিং বলেন, গুরুদ্বার ছাড়া অন্য কোথাও গুরু গ্রন্থ সাহিব নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে অকাল তখত হুকুমনামায় কঠোর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। দীপবীরের বিয়েতে এই নিয়ম অমান্য হওয়ায় কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিষয়টি তিনি অকাল তখত জাঠেদরের কাছে তুলেছেন। এ বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের পাঁচ জন ধর্মগুরুর কাছেও অভিযোগ যাবে বলে জানানো হয়েছে।

যদিও এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেননি দীপিকা বা রণবীর। আপাতত তারা ব্যস্ত দুই দফার রিসেপশন পার্টি নিয়ে। ইতালিতে শুধু পরিবারের লোকজন ও ঘনিষ্ঠ কয়েকজন আত্মীয়-স্বজন নিয়ে তারা বিয়ের অনুষ্ঠান সেরেছেন। কিন্তু রিসেপশন পার্টিতে নবদম্পতি দাওয়াত করেছেন বলিউডের বড় বড় সব তারকা, বন্ধুবান্ধব ও সহকর্মীদের। কাজেই অন্যকিছু নিয়ে ভাবার সময় কই?

ঢাকা টাইমস/ ১৯ নভেম্বর/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত