অ্যাকর্ড কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ নভেম্বর ২০১৮, ২০:১৭

গার্মেন্টস মালিকদের টারমিনেট করার নোটিশ দেয়ায় ইউরোপীয় ক্রেতাদের জোট অ্যাকর্ডেও বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। এক সপ্তাহের মধ্যে অ্যাকর্ড কর্তৃপক্ষকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ মইনুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক।

আদেশের পর ইমতিয়াজ মইনুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, যেসব প্রতিষ্ঠানকে অ্যাকর্ড আগে টারমিনেশন নোটিশ দিয়েছিল, তারা উচ্চ আদালতে গিয়ে স্থগিতাদেশ নিয়েছিল। এরপরও গত ৮ নভেম্বর অ্যাকর্ডের পক্ষ থেকে একটি নোটিশ দেওয়া হয়। নোটিশে বলা হয়েছে, তারা যাওয়ার সময় এসব প্রতিষ্ঠানকে টারমিনেট করে যাবে। এই নোটিশের বৈধতা নিয়ে প্রতিষ্ঠানগুলো হাইকোর্টে আবেদন করেন। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট আদালত অবমাননার রুল জারি করে।

মইনুল ইসলাম আরও জানান, গত ২ অক্টোবর এক গার্মেন্টসকে দেওয়া অ্যাকর্ডের টারমিনেশন নোটিশ আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে অ্যাকর্ড কর্তৃক এমএন ক্লোথিং লিমিটেডকে পাঠানো ১৩ সেপ্টেম্বরের টারমিনেশন নোটিশ কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।   

তিনি আরও জানান, গত ৯ আগস্ট হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ আদেশ দিয়েছিলেন, নভেম্বরের পরে অ্যাকর্ড এ দেশে কার্যক্রম চালাতে পারবে না। এই সময়ের মধ্যে তারা নিজের উদ্যোগে কোনো ফ্যাক্টরির ব্যবসা বন্ধ বা টারমিনেট করতে পারবে না। সেটার ভায়োলেশন করে অ্যাকর্ড বাংলাদেশি কয়েকটি ফ্যাক্টরিকে টারমিনেশন নোটিশ দিয়েছিল। তার মধ্যে এমএন ক্লোথিং লিমিটেড একটি রিট করেছে টারমিনেশন নোটিশ চ্যালেঞ্জ করে। এ রিটের পর আদালত নোটিশের কার্যকারিতা আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে রুল জারি করেছেন।

ঢাকাটাইমস/২০নভেম্বর/এমএবি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত