ভীত নড়ে উঠছে সৌদি যুবরাজের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ২০ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৩৮

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যার ঘটনায় পশ্চিমা দেশগুলোর চাপ বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি সৌদি রাজপরিবারের কিছু সদস্য ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান যেন বাদশা না হতে পারে তার বিরোধিতায় সরব হচ্ছেন। রাজপ্রাসাদ সংশ্লিষ্ট তিনটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এই তথ্য জানিয়েছে।

শাসক আল সৌদ পরিবারের বেশ কয়েকজন যুবরাজ এবং যুবরাজ মোহাম্মদের চাচাতো ভাইয়েরা সিংহাসনের উত্তরাধিকার প্রশ্নে পরিবর্তন দেখতে চান। তবে ৮২ বছর বয়সী বাদশাহ সালমান বেঁচে থাকা অবস্থায় এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ তারা নেবেন না বলে জানিয়েছে সূত্রগুলো।

প্রিয় পুত্র যুবরাজ মোহাম্মদের বিরুদ্ধে বাদশাহর যাওয়ার সম্ভাবনাও ক্ষীণ। এই পরিস্থিতিতে াঁরা সম্ভাব্য নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করছেন পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে। বাদশাহর মৃত্যুর পর তার একমাত্র জীবিত আপন ভাই ৭৬ বছর বয়সী যুবরাজ আহমেদ বিন আবদুলাজিজ সিংহাসনে আরোহণ করতে পারেন বলে সেই সব আলোচনায় উঠে আসছে।

সৌদি সূত্র জানায়, প্রিন্স আহমেদ বিন আবদুল আজিজকে সিংহাসনে বসাতে আগ্রহী। তিনি গত ৪০ বছর ধরে সৌদির উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বাদশাহ হলে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদের এ চাচা পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থা এবং যুক্তরাষ্ট্রসহ কিছু পশ্চিমা দেশেরও সমর্থন পাবেন।

আড়াই মাস বিদেশে কাটিয়ে প্রিন্স আহমেদ গত মাসে রিয়াদে ফিরেছেন। বিদেশে থাকাকালে লন্ডনে তার বাসভবনের সামনে সৌদ সাম্রাজ্যের পতন চেয়ে বিক্ষোভকারীদের স্লোগানের প্রতিক্রিয়ায় সৌদি আরবের বর্তমান নেতৃত্বের সমালোচনাও করেছিলেন বাদশা সালমানের এ ছোট ভাই। ২০১৭ সালে উত্তরাধিকার নির্ধারণ কমিটির যে তিন জ্যেষ্ঠ সদস্য এমবিএসকে ক্রাউন প্রিন্স বানানোর বিরোধিতা করেছিলেন, আহমেদ তাদের একজন ছিলেন বলেও দুটি সূত্র সেসময় নিশ্চিত করেছিল।

সৌদি প্রিন্স আহমেদ বিন আবদুল আজিজ বা তার কোনো প্রতিনিধি এই বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি। রিয়াদের কোনো কর্মকর্তাও উত্তরাধিকার ইস্যুতে রয়টার্সকে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানায়।

(ঢাকাটাইমস/২০নভেম্বর/এসআই)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত