জনগণের পাশেই থাকব: দোলন

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি
| আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৫:০৩ | প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৪:৫৮

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেলেও জনগণের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের সহসভাপতি ও ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুর রহমান দোলন। তিনি বলেন, অতীতে যেভাবে জনগণের পাশে ছিলাম আগামীতেও থাকব। মনোনয়ন বড় কথা নয়, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে দলকে আবার ক্ষমতায় আনাই বড় বিষয়।

শনিবার সকালে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় পৌর কৃষক লীগ কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তৃণমূলের জনপ্রিয় নেতা আরিফুর রহমান দোলন এবার ফরিদপুর-১ (আলফাডাঙ্গা-মধুখালী-বোয়ালমারী) আসনে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত এখানে সাবেক এক সচিবকে প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়েছে ক্ষমতাসীন দল।

কর্মিসভায় দোলন বলেন, ‘আমরা যারা আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাস করি, আমাদের এক এবং একমাত্র দায়িত্ব ও কর্তব্য হবে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে কাজ করা। দলকে আবার ক্ষমতায় আনা।’ এ সময় তিনি মনোনয়ন না পেলেও দলীয় নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান জানান।

কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় এই নেতা নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি জানি আপনাদের মনে অনেক দুঃখ, অনেক ব্যথা। চাওয়ার সঙ্গে পাওয়ার মিল না থাকলে কষ্ট হওয়াই স্বাভাবিক। কিন্তু তার চেয়েও বড় দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে শেখ হাসিনার থাকা। এ কারণে শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত আমাদের মেনে নিয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের ধৈর্য ধারণ করতে হবে। নিশ্চয়ই ধৈর্য ধারণের ফল সুমিষ্ট।’  

নিজের সমর্থকদের অভয় দিয়ে দোলন বলেন, ‘আমি পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আপনাদের কেউ নিরাপত্তাহীনতায় ভোগলে, আমাকে সমর্থন দেয়ায় আপনাদের প্রতি কেউ বিরূপ আচরণ করলে আমাকে জানাবেন। আমাদের কর্মী সমর্থক শুভাকাক্সক্ষী কারও প্রতি কেউ বাঁকা দৃষ্টিতে তাকানোর সুযোগ পাবে না। আমি বেঁচে থাকতে সেটি হতে দেব না।’

যেকোনো ভালো কাজে থাকার অঙ্গীকার করে দোলন বলেন, ‘সুখে থাকতে না পারলেও আপনাদের দুঃখে থাকব, আমি অঙ্গীকার করছি। আপনাদের উন্নয়নে অতীতে যেভাবে ছিলাম ভবিষ্যতেও থাকব। আমি মনে করি রাজনীতি হচ্ছে সমাজসেবা। আর এই সমাজসেবা আমার পরিবার একশ বছরেরও বেশি সময় ধরে এই অঞ্চলে করে আসছে। এটি পরীক্ষিত। আপনারা সেটি জানেন। আমি সেই পরিবারের সন্তান হিসেবে আমৃত্যু সমাজসেবার সঙ্গে নিজেকে নিয়োজিত রাখব। সেই ভালো কাজে আপনার আমাকে সহায়তা করবেন। আর শেখ হাসিনা যেন সম্মানিত হন, শক্তিশালী হন সেইভাবে আপনাদের কাজ করার আমি আহ্বান জানাই।’

কাঞ্চন মুন্সি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি এই অঞ্চলের মানুষের সামাজিক রাজনৈতিক কর্মকা-ে জড়িত থাকতে গিয়ে প্রায় তিন বছর আগে একটি পা হারাতে বসেছিলাম। ঢাকা থেকে গ্রামে আসার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় আমার বাঁ পা মারাত্মভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তারপরও আমি পিছিয়ে যাইনি। এই অঞ্চলের মানুুষের ভাগ্যোন্নয়নে বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচিতে আমাকে যখন ডাকা হয়েছে অথবা ডাকা হয়নি আমি বারবার ছুটে এসেছি আপনাদের টানে, নাড়ির টানে। আমি এই অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নমূলক কাজে আরও বেশি করে আসব সেই অঙ্গীকার করছি।’

এ সময় তিনি নির্বাচনী আচরণবিধি যাতে লঙ্ঘন না হয় এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান দোলন।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন পৌর কৃষক লীগের আহ্বায়ক আব্দুল আওয়াল ফকির। পরিচালনা করেন পৌর কৃষক লীগের সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম রাজিব।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা কৃষক লীগের সদস্য সচিব শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ।

(ঢাকাটাইমস/০১ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/ওআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজপাট বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত