প্রতিপক্ষ নয়, নিজেদের নিয়ে ভাবছেন মিঠুন

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১:০০ | প্রকাশিত : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:৫৫

ফরম্যাট যত ছোট হবে প্রতিপক্ষ হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তত কঠিন। বিষয়টা স্বাভাবিক। বাংলাদেশের কন্ডিশনে টেস্টে পেস আক্রমণ খুব একটা কাজে না দিলেও ওয়ানডেতে কাজে দেবে। ক্যারিবীয়দের পেস আক্রমণ যথেষ্ট শক্তিশালী। পাশাপাশি রানের মাঝে আছেন, শাই হোপ, শিমরন হেটমায়ারদের মত ব্যাটসম্যানরা। এ কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসন্ন তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটি বেশ কঠিন হবে বলে মনে করছেন সবাই।

ডানহাতি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুনের মুখেও শোনা গেল এই কথা। উইন্ডিজের ক্রিকেটারদের বিশ্বমানের খেলোয়াড় মানেন তিনি। তবে, প্রতিপক্ষ নিয়ে না ভেবে নিজেদের পারফরম্যান্সের প্রতিই বেশি জোর দিচ্ছেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

ঘরের মাঠে নিজেদের শক্তিশালী উল্লেখ করে মিঠুন বলেন, ‘আমার মতে, প্রতিপক্ষকে নিয়ে বেশি চিন্তা করার চেয়ে নিজেদের নিয়ে বেশি চিন্তা করা উচিত। আমরা যদি আমাদের সেরা খেলাটা খেলতে পারি তাহলে বিশ্বের যেকোনো দলকে হারানো সম্ভব। দেখুন, আমাদের হোম কন্ডিশনে আমরা কিন্তু বেশ শক্তিশালী দল। যেকোনো দল এখানে এলে বাংলাদেশকে নিয়ে আলাদাভাবে চিন্তা করে। আমাদের কন্ডিশনে যেহেতু খেলা হচ্ছে, আমরা যদি নিজেদের পারফরম্যান্সে ফোকাস করি, তাহলে জেতার জন্য সেটাই যথেষ্টই।’

তাছাড়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটারদের বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের সঙ্গে তুলনা করে মিথুন বলেন, ‘ওদের নিয়ে যদি আপনি চিন্তুা করতে যান, তাহলে ভালোভাবেই চিন্তা করতে হবে। কারণ, ওদের সব ক্রিকেটারই ভালো। হয়তো টেস্টে এখানকার কন্ডিশনে নিজেদের মানাতে পারেনি। কাজেই, ক্রিকেটার হিসেবে আপনি তাদের কাউকেই ছোট করতে পারবেন না। তারা সবাই বিশে^র সেরা খেলোয়াড়।’

ওয়ানডে সিরিজের আগে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে খুব একটা ভালো করতে পারেননি মিঠুন। ১৪ বল খেলে মাত্র ৫ রানে সাজঘরে ফেরেন তিনি। ফলে, প্রথম ওয়ানডেতে দলে জায়গা পাওয়া বেশ চ্যালেঞ্জিং হয়ে উঠেছে তার জন্য। মাঠে ফিরেছেন তামিম-সাকিব। রানে আছে ইমরুল-সৌম্যও। সেই প্রতিযোগিতায় প্রথম একাদশে মিথুন বাদ পড়লে অবাক হওয়ারও কিছু থাকবে না। তবে এই প্রতিযোগিতাকে খুব ইতিবাচকভাবেই নিচ্ছেন এই ব্যাটসম্যান। তার মতে, ‘দলে জায়গা পাওয়ার জিনিসটা চ্যালেঞ্জিং কি না সেটা টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয়। টিমের সেরা একাদশ যারা, তারাই খেলবে। আর টিমের মধ্যে সবসময় চ্যালেঞ্জ জিনিসটা থাকা ভালো। প্রতিযোগিতা যত বেশি থাকবে, ক্রিকেটারদের ভালো খেলার সম্ভাবনা ততো বেশি।’

তবে সুযোগ পেলে নিজের সেরাটাই দিতে চান মিঠুন। ২৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার নিজের সেরা খেলার আশ্বাস দিয়ে বলেন, ‘প্রস্তুতি ম্যাচে তো খুব একটা বল খেলার সুযোগ পাইনি। পরের ম্যাচ খেললে আবার পরিস্কার মনেই ক্রিজে যেতে হবে এবং প্রথম বল থেকেই ইনিংস গড়তে হবে। যদি সেরা একাদশে সুযোগ হয় অবশ্যই চেষ্টা করবো নিজের সেরাটা দেয়ার জন্য।’

(ঢাকাটাইমস/৭ ডিসেম্বর/এইচএ/এবিএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত