ইন্টারনেট প্যাকেজের সর্বনিম্ন মেয়াদ সাত দিন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:০৩

দেশের টেলিকম অপারেটরগুলোর ইন্টারনেট প্যাকেজের মেয়াদ সর্বনিম্ন সাত দিন করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক।

শনিবার দুপুরে বিটিআরসি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

২০১৮ সালের অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষা সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক বলেন, ‘শিগগিরই মোবাইল ইন্টারনেটের মেয়াদ সর্বনিম্ন সাত দিন করার জন্য আমরা টেলিকম অপারেটরগুলোর সঙ্গে বসবো।’

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, অনেক দিন ধরে গ্রাহকরা বিভিন্ন ইন্টারনেট প্যাকেজের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য তাগিদ দিচ্ছিলেন। গ্রাহকদের অভিযোগ ইন্টারনেট ব্যবহারে করার আগেই প্যাকেজের মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে, এ কারণে তারা টাকা ফেরত চান। এজন্য নূন্যতম মেয়াদ সাত দিন করা হবে।

তিনি বলেন, মোবাইল অপারেটরগুলোর বিভিন্ন প্যাকেজ নিয়েও আলোচনা হবে। বিটিআরসি গ্রাহক বান্ধব সংস্থা। গ্রাহকদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করছি। একই সঙ্গে অপারেটরগুলোকে ব্যবসাবন্ধব পরিবেশ দিতেও সহায়তা করছি। এজন্য কমিশন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এখন কোনো প্যাকেজ সাত দিনের কম হতে পারবে না। এই সিদ্ধান্তটি এখনও কার্যকর হয়নি। আগামী মাসের নয় তারিখের মধ্যে আমরা অপারেটরদের কথা শুনবো’ বলেন চেয়ারম্যান।

তিনি আরো বলেন, ‘আগে দুই ঘণ্টা, তিন ঘণ্টা বা সাত ঘণ্টায় ইন্টারনেট প্যাকেজের মেয়াদ শেষ হয়ে যেত। ফলে মানুষের হয়রানি হত। এতে করে ওই প্যাকেজের ইন্টারনেট ইউজ না হতে হতেই মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। তখন আপনি অপারেটরদের কাছে যখন ক্লেইম করবেন তখন অপারেটর বলছে তারা সময় বেঁধে দিয়েছিল।

বিটিআরসিকে ক্রেতাবান্ধব উল্লেখ করে জহুরুল হক বলেন, ‘কাস্টমারের সকল সুবিধা বিটিআরসি সব সময় অগ্রাহীকার দিয়ে আসছে। অন্যদিকে আমরা টেলিকম অপারেটরদের ব্যবসার দিকটাও দেখছি।

সংবাদ সম্মেলনে বিটিআরসির তরঙ্গ বিভাগের মহাপরিচালক নাসিম পারভেজসহ প্রতিষ্ঠানটির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/৮ডিসেম্বর/এজেড)


 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত