অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের দাবিতে নয়াদিল্লিতে বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৪৫

ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের অযোধ্যায় ১৬ শতকের তৈরি বাবরি মসজিদ ধ্বংস করে রামমন্দির নির্মাণের দাবিতে রবিবার নয়াদিল্লিতে বিক্ষোভ করেছেন হাজার হাজার হিন্দু ধর্মীয় নেতা ও সমর্থক। ২০১৯ সালে মে মাসে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের আগেই নতুন রাম মন্দির দেখতে চায় আন্দোলনকারীরা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ২০১৪ সালের পরে ভারতীয় জনতা পার্টিকে (বিজেপি) ভালো চোখে দেখছেন না অধিকাংশ বিশ্লেষক। প্রায়ই দলটির বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক ইস্যুতে উসকানি দিয়ে জনসমর্থন আদায় করার অভিযোগ রয়েছে।

গত তিন দশক ধরে বিজেপি ও হিন্দু সংগঠনগুলো অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে। নির্বাচনের আগে অযোধ্য বিতর্ক পুনরুজ্জীবিত করেছে  হিন্দু ও মুসলিমদের  মধ্যে উত্তেজনা বাড়াচ্ছে। ভারতের এক কোটি ৩০ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে ১৪ শতাংশ মুসলিমের বসবাস।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর অযোধ্যায় উগ্র হিন্দুরা কয়েক হাজার বছর পুরনো বাবরি মসজিদ ধ্বংস করে দেয়। এ ঘটনায় নয়াদিল্লি, মুম্বাইসহ অন্যান্য শহরে হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। এতে দুই হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়। এদের বেশির ভাগই মুসলমান। ভারত-পাকিস্তান ভাগের এত বড় দাঙ্গা আর দেখা যায়নি।

অধিকাংশ হিন্দু মনে করে ভগবান রাম অযোধ্যায় জন্ম গ্রহণ করেছেন। তাদের দাবি, বাবরি মসজিদ নির্মাণের আগে এখানে একটি মন্দির ছিল। এক মুসলিম শাসক ১৫২৮ সালে বাবরি মসজিদটি নির্মাণ করেন।

বিজেপির ঘনিষ্ঠ বিশ্ব হিন্দু পরিষদের (বিএইচপি) মুখপাত্র শারদ শর্মা জানান, হিন্দু ধর্মীয় গুরুরা চায় মন্দিরা নির্মাণে সরকার আইনি সমাধান দিক।

তিনি বলেন, ‘অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ লাখ লাখ হিন্দুদের ধমীয় বিশ্বাসের প্রশ্ন। এর জন্য তারা অনন্তকাল অপেক্ষা করে বসে থাকবে না।’

হিন্দু ও মুসলিম উভয় গোষ্ঠী এই সমস্যা সমাধানে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন। তবে সুপ্রিম কোর্ট রায় দিতে আরও সময় লাগবে বলে জানিয়ে দিয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/৯ডিসেম্বর/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :