অবশেষে ভোটে ইমরান

নিজস্ব প্রতিবেদক
| আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৯:৫২ | প্রকাশিত : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৯:৪৯
ফাইল ছবি

অবশেষে ভোটের লড়াইয়ে ফিরেছেন শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার। উচ্চ আদালতের নির্দেশে তিনি প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এর আগে রিটার্নিং কর্মকর্তার বাছাইয়ে এবং নির্বাচন কমিশনের আপিলে তার প্রার্থিতা বাতিল হয়ে যায়। কুড়িগ্রাম-৪ আসনে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়বেন।  

রবিবার রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করে প্রতীক বরাদ্দের নির্দেশ দেন।

ইমরান এইচ সরকার ঢাকা টাইমসকে এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, উচ্চ আদালতের রায়ে তিনি খুশি। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে তিনি লড়বেন।
গত ২ ডিসেম্বর কুড়িগ্রাম জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে ইমরান এইচ সরকারের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। মনোনয়নপত্রে নির্দিষ্টসংখ্যক জনসমর্থনের তথ্য জমা না দেয়ায় তা বাতিল করা হয়। এই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে তিনি নির্বাচন কমিশনে যান। সেখানে তার প্রার্থিতা বাতিলের রায় আসে। পরে তিনি শরণাপন্ন হন উচ্চ আদালতের।

ইমরান এইচ সরকার আলোচনায় আসেন ২০১৩ সালে শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের নেতৃত্ব দিয়ে। তিনি ওই মঞ্চের মুখপাত্র নির্বাচিত হন। তবে পরে নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বে বিভক্ত হয়ে পড়ে গণজাগরণ মঞ্চ। আওয়ামী লীগের সঙ্গে এক সময় ঘনিষ্ঠতা থাকলেও এখন আর নেই। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের মেয়েকে বিয়ে করে আবার আলোচনায় আসেন চিকিৎসক ইমরান। তবে সেই বিয়ে বেশিদিন টিকেনি। একসময় সরকারের আনুকূল্য পাওয়া ইমরানের বিরুদ্ধে এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হুমকির মামলা রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১০ডিসেম্বর/এমএবি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত