ফরিদপুরে বাস-পিকআপের ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:০০

ফরিদপুরে নগরকান্দা উপজেলায় দুটি বাস ও একটি পিকআপের মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত সাতজন।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চর যশোহরর্দী ইউনিয়নের গজারিয়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার পর এলাকাবাসী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এ সময় প্রায় দেড় ঘণ্টা ওই মহা সড়কে যানবাহন চলাচলা বন্ধ হয়ে যায়।

নিহতরা হলেন- পিকআপের হেলপার ভাঙ্গা পৌরসভার হোগলাকান্দি এলাকার আব্দুল মালেক মুন্সীর ছেলে আজিজুর রহমান মুন্সী (৫৫)। অপরজন বাসযাত্রী টুঙ্গিপাড়ার বরনী গ্রামের সোলায়মান মোল্যার ছেলে হাফিজুর রহমান বাদল (৪০)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনাস্থলে সড়কের পাশে আগে থেকেই ইউনিলিভার কোম্পানির একটি পিকআপ (ফরিদপুর ন ১১-০১২২) দাঁড়ানো ছিল। ওই সময় নড়াইল থেকে ঢাকাগামী ঈগল পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৯৮৩১) একটি বাসকে ঢাকা থেকে পিরোজপুরগামী ইমাদ পরিবহনের বাস (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৪৯০৪) ধাক্কা দেয়। এতে ঈগল পরিবহনের বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা পিকআপকে ধাক্কা দিয়ে পাশের খাদে পড়ে যায়। খবর পেয়ে ফরিদপুর ও মুকসুদপুরের দমকল বাহিনীর দুটি দল ঘটনাস্থলে এসে হতাহতদের উদ্ধার করে।

ঘটনাস্থলে একজন ও মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে আরেকজন মারা যান। আহত হন আরও সাতজন যাত্রী।

ফরিদপুর দমকল বাহিনীর সহকারী পরিচালক এ বি এম মমতাজ উদ্দিন আহমেদ জানান, নিহদের মধ্যে হাফিজুর রহমান বাদল (৪০) ইমাদ পরিবহনের যাত্রী ছিলেন। এ ঘটনায় ঈগল পরিবহনের চাপায় রাস্তার পাশে থাকা একটি গরুও মারা যায়।

আহত সাতজনের মধ্যে দুইজনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং অপর পাঁচজনকে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং উদ্ধার কাজে দমকল বাহিনীকে সাহায্য করে। তিনি বলেন, দুর্ঘটনা কবলিত দুটি বাস জব্দ করা হয়েছে। ওই দুটি বাসের দুই চালক পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ঢাকাটাইমস/১০ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত