জামালপুর-৩ (মেলান্দহ-মাদারগঞ্জ)

আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষে আহত ১০, গ্রেপ্তার ৬

জামালপুর প্রতিনিধি
 | প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:১০

জামালপুরের মেলান্দহের দুরমুটে বিএনপির প্রার্থীর মাজার জিয়ারাতের জন্য যাওয়ার পথে আওয়ামী লীগ কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে দুই পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় বিএনপির ছয়জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সংঘর্ষের ঘটনায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা পরস্পরের বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেন।
বিএনপির প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল অভিযোগ করে বলেন, প্রতীক বরাদ্দের পর তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে দুরমুটের হজরত শাহ কামাল (র.)-এর মাজার জিয়ারত করতে যান। পথে দুরমুট বাজারের কাছে স্থানীয় যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে। হামলায় বিএনপির পাঁচ নেতাকর্মী আহত হন বলে দাবি করেন তিনি।

বিএনপির প্রার্থীর অভিযোগকে মিথ্যা বলে দাবি করেছেন দুরমুট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ খালেকুজ্জামান যুবেরী। তিনি বলেন, ‘জামালপুর-৩  (মেলান্দহ-মাদারগঞ্জ) আসনের বিএনপির প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল ৪০-৫০টি মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে মাজার জিয়াতের নামে মহড়া দিতে এসেছেন। এ সময় তার আমার নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এতে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এস এম ইমরান, সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলীসহ ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমপক্ষে পাঁচ নেতাকর্মী আহত হয়।’

দুই দলের সংঘর্ষের সত্যতা নিশ্চিত করে মেলান্দহ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মর্জিনা খাতুন জানান, আওয়ামী লীগ-বিএনপির সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত