খুনিরা পার পাবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
 | প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৪:২৩

নিবার্চনী প্রচার চলাকালে ফরিদপুর ও নোয়াখালীতে দলীয় নেতা হত্যায় জড়িতদের বিচারের মুখোমুখি করার অঙ্গীকার করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বলেছেন, ‘যারা হত্যা করেছে তাদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।’

বুধবার দুপুরে রাজধানীতে নিজের নির্বাচনী এলাকা কারওয়ান বাজারে ব্যবসায়ী ও পেশাজীবীদের সমাবেশে মন্ত্রী এই কথা বলেন।

আগেরদিন ফরিদপুরে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে পিটিয়ে এবং নোয়াখালীতে এক যুবলীগ নেতাকে মাথা থেঁতলে ও গুলি করে হত্যা করা হয়। দুটি ঘটনাতেই নাম এসেছে বিএনপির নেতা-কর্মীদের।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দুইজন আওয়ামী লীগের নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ কোনোদিন হত্যার রাজনীতি করে না। হত্যা এবং সন্ত্রাসের রাজনীতি যারা করে তাদেরই এই সমস্ত প্রয়াস।’

‘২০১৩ সালে তারা নিরীহ লোককে অগ্নি সন্ত্রাসের মাধ্যমে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে। নির্বাচন যখন সামনে এসে গেছে তখন দেখছে দেশের জনগণ তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করছে, তাই এই হত্যার উপায় বেছে নিয়েছে।’

‘হত্যা করুক আর যাই করুক, এই দেশের জনগণ শান্তি চাই, একটা স্থায়ী সরকার চায়। সেটা শেখ হাসিনার মতো সরকার। হত্যা করে মানুষকে বিভ্রান্তি করতে পারবে না। কারণ জনগণ প্রধানমন্ত্রীর সাথে আছে।’

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অত্যন্ত দক্ষ জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের নিরাপত্তাবাহিনী যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত আছে। তারা জঙ্গি এবং সন্ত্রাস দমনে যে ভূমিকা রেখেছিল- তেমনি নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধায়নে তারা দক্ষতার সঙ্গে এই সমস্ত সন্ত্রাস ও মানুষ হত্যা কন্ট্রোল করার ক্ষমতা রয়েছে। দায়ী ব্যক্তিদের চিহিৃত করে বিচারের মুখোমুখি করে দেবে।’

নির্বাচনের আগে বড় ধরনের কোন সহিংসতার আশঙ্কা আছে কি না জানতে চাইলে কামাল বলেন, ‘স্পষ্ট করে বলে দিচ্ছি, বড় ধরনের সহিংসতা, নাশকতা বা হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটবে কি না তা দেখতে তৎপর রয়েছে আমাদের গোয়েন্দাবাহিনী। কাজেই তারা কোন চ্যালেঞ্জই চ্যালেঞ্জ মনে করছে না। আমরা নির্বাচনে সহিংসতার হবে এমন কোন আশঙ্কা মনে করছি না।’

সুন্দর শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘আর এই নির্বাচনে শেখ হাসিনা আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন। কারণ, জনগণ আর কোনোদিন অন্ধকারে নিমজ্জিত হতে চায় না।’

ঢাকাটাইমস/১২ডিসেম্বর/এসএস/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত