অন্যের হেলমেট ব্যবহারে স্বাস্থ্যঝুঁকি

অটোমোবাইল ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:২২

মোটরসাইকেলে চড়ার সময় চালক ও আরোহীর জন্য হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক। নিরাপত্তার জন্যও হেলমেট পরতে হয়। রাইড শেয়ারিংয়ের বাইকে এখন অনেকেই চড়েন। তখন একই হেলমেট অনেককেই পরতে হয়। 

ভারতের ত্বক বিশেষজ্ঞ সঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, মাথার ত্বকে যে সমস্ত ছত্রাকঘটিত অসুখ, চুল পড়ে যাওয়া বা মাথার ত্বকে প্রদাহ হওয়ার যে প্রবণতা তা একই হেলমেট অনেকের ব্যবহারের কারণে বাড়ে।

তার ভাষ্য, ‘একই হেলমেট অনেক জন ভাগ করে পরলে মাথার ত্বকে সমস্যা তৈরি হয়।

কিন্তু কেন এমন হয়? চিকিৎসকদের মতে, শীতে টুপি বা সারা বছর হেলমেট পরার জেরে মাথা, কান ঢাকা থাকে। তাই শরীরের এসব অংশ খুব সহজেই ঘেমে যায়। ঘাম শুকিয়ে গেলেও জীবাণু লেগে থাকে হেলমেট বা টুপিতে। পরে এই হেলমেট যখন অন্য কেউ পরেন, তখন খুব সহজেই জীবাণু তার শরীরে সংক্রমিত হয়। নিজের শরীরের ঘাম ও তার জীবাণুর সঙ্গে লড়তে পারার ক্ষমতা আমাদের শরীরের প্রতিরোধ শক্তি রয়েছে। কিন্তু প্রত্যেকের ঘামের প্রকৃতি ভিন্ন। তাই অন্যের ঘাম থেকে সংক্রমিত জীবাণুর সঙ্গে লড়ার ক্ষমতা সকলের থাকে না।

তা হলে উপায়?
চিকিৎসকদের মতে, সব সময় আলাদা টুপি বা আলাদা হেলমেট ব্যবহার করাই উচিত।

একান্তই একই হেলমেট ব্যবহার করতে হলে ব্যবহারের আগে নরম ভিজে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে শুকিয়ে তার পর মাথায় দিন। মাথায় কাপড় বেঁধে তার উপরও পরতে পারেন হেলমেট।

আপদকালীন সময়ে হাতে সময় কম থাকলে অবশ্যই বাড়ি ফিরে ভাল করে অ্যান্টিসেপটিক লোশন মেশানো জলে মাথা ধুয়ে নিন।

(ঢাকাটাইমস/১৩ডিসেম্বর/এজেড)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত