'হিন্দুত্বই বাঁচাতে পারে বিজেপিকে'

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:২২

সদ্য সমাপ্ত পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির ভরাডুবি চিন্তায় ফেলে দিয়েছে নরেন্দ্র মোদিকে। লোকসভা নির্বাচনের আগে এমন ফলকে বিপর্যয় হিসেবে উল্লেখ করেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। এই বিপর্যয় থেকে উত্তরণ পেতে হিন্দুত্বকেই বেছে নিতে মোদির দলকে পরামর্শ দিয়েছে ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পূর্বাঞ্চলের প্রধান শচীন্দ্রনাথ সিনহা বলেন, ‘রাম মন্দিরের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি।  সরকারের সাড়ে চার বছর পেরিয়েছে।  বাকি সময়ের মধ্যে অবশ্যই রাম মন্দির নির্মাণ করা দরকার। ’

শচীন্দ্রনাথের বলেন, এই রেজাল্টে আমরা সংঘ পরিবারের সদস্যরা মোটেও ভেঙে পড়িনি।  বরং আমরা আরও উৎসাহ নিয়ে গা-ঝাড়া দিয়ে উঠব লোকসভা নির্বাচনের প্রস্তুতির জন্য।  হিন্দুবাদী সরকারকে টিকিয়ে রাখার জন্য আমরা নতুন উৎসাহে কাজ শুরু করব।  এরপরই তিনি বলেন, ‘আমরা আরএসএসে শিখেছিলাম শক্তিশালী প্রহারের আগে একটু পিছিয়ে যেতে হয়।  এটাও সেরকমই।  কোনও পরাজয়ই স্থায়ী নয়।  হারের মধ্যেই জয়ের বীজ লুকিয়ে থাকে।  এই নির্বাচন আমাদের জন্য একটা শিক্ষা।  হিন্দু বিরোধী শক্তিরা একজোট।  আমাদেরও একজোট হতে হবে। ’’

মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, রাজস্থানের মতো একসময়ের গেরুয়াগড়ে তথাকথিত হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপির পরাজয়ের কারণ নিয়ে এখনই মন্তব্য করতে রাজী হননি বিশ্বহিন্দু পরিষদের এই শীর্ষ নেতা।  হারের কারণ না খুঁজলেও তার বক্তব্য, যে রাজ্যগুলো বিজেপির হাতছাড়া হয়েছে সেখানে নোটা একটা বড় ফ্যাক্টার হয়েছে।  তাছাড়াও কংগ্রেস বিজেপির ভোটের পার্থক্য অধিকাংশ জায়গাতে খুবই কম। 

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে ভালো দিনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসে হিন্দুত্ব, গোরক্ষা, মন্দির এসব বিষয় নিয়ে অত্যধিক বাড়াবাড়ি করার জন্য পাঁচরাজ্যে বিজেপির এই অবস্থা।

(ঢাকাটাইমস/১৩ডিসেম্বর/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত