‘আমরা তোমাদের ভুলব না’

কুবি প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:২০

গভীর রাতে দরজায় ঠক ঠক আওয়াজ, ভেতর থেকে পরিচয় জানতে চাইলে উত্তর এলো- একটু বাইরে আসেন, কথা আছে। সহজ, সাধারণ ও সাদামনের বোদ্ধা মানুষগুলো সেই যে বের হয়েছিলো আপন পরিবার ছেড়ে; কোনোদিন আর সন্তানের বাবা ডাক শুনেননি। রাজাকার, আলবদরদের সহযোগিতায় আজকের এই দিনে (১৪ ডিসেম্বর) পাকিস্তানি হানাদারদের হাতে নৃশংসভাবে প্রাণ দিয়েছেন দেশের অকুতোভয় সেই সূর্য সন্তানরা।

বাঙালি জাতির জন্য নিঃসন্দেহে একটি কালো অধ্যায় এই শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। সেই শহীদ বুদ্ধিজীবীদের কখনো ভুলবে না এদেশের মানুষ।

দেশের মেধাবী সেই বীরদের আত্মার শান্তি কামনা করেই প্রতিবছর এই দিনটিকে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস হিসেবে পালন করা হয়। ধারাবাহিকতার সূত্রে এবারও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) যথাবিধি ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে পালিত হয়েছে দিনটি। সকালে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সাথে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার ড. মো. আবু তাহের। পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন বিভাগ, সংগঠন ও শাখা ছাত্রলীগ ফুলেল শ্রদ্ধা জানায়।

শ্রদ্ধার্পণ শেষে এক সংক্ষিপ্ত ভাষণে বক্তারা বলেন, 'আজ এমন একটি দিন যেদিন জাতির সূর্য সন্তান বুদ্ধিজীবীদের পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসররা নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। মহান বিজয় দিবসের মাত্র ৪৮ ঘণ্টা আগে আমাদের দুয়ারে এসে উপস্থিত হয় শোক গভীর ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। বাঙালি জাতি সেই শহীদেরকে আজ শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছে।'

দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন; সকাল ১০.৩০ টায় কালো ব্যাজ ধারণ ও শোকযাত্রা; সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা; সকাল ১১.৪৫টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং বাদ জুমা শহীদ বুদ্ধিজীবীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

এসব কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী; বিভিন্ন আবাসিক হল, শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

(ঢাকাটাইমস/১৪ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত