মতিয়া চৌধুরীর নির্বাচনী প্রচার কেন্দ্র ভাঙচুর

শেরপুর প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:১৪ | প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:২৭

শেরপুরের নকলায় কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীর নির্বাচনী প্রচার কেন্দ্র ভাঙচুর করা হয়েছে। স্থানীয় বিএনপি কর্মীরা তার কার্যালয় ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ। এ সময়  দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে অন্তত ৩০ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। 
শুক্রবার রাতে উপজেলার টালকি ইউনিয়নের রামেরকান্দি ও নারায়নখোলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

পুলিশ এ ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম  সম্পাদক খোরশেদ আলমসহ পাঁচ বিএনপি নেতাকে আটক করেছে। 

স্থানীয়রা জানায়, নকলার টালকি ইউনিয়নের রামেরকান্দি বাজারে শুক্রবার রাতে বিএনপি প্রার্থী ফাহিম চৌধুরীর পক্ষে নির্বাচনী কার্যালয় খোলার প্রস্তুতি নেয় স্থনীয় বিএনপির নেতা-কর্মীরা। এতে বাধা দেয় ওই এলাকার আওয়ামী লীগ কর্মীরা। 

এ নিয়ে বিএনপি কর্মীরা আওয়ামী লীগ কর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় উভয় পক্ষের ঘণ্টাব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। 
এক পর্যায়ে বিএনপি নেতা-কর্মীরা অতর্কিত মতিয়া চৌধুরীর নির্বাচনী প্রচার কেন্দ্রে হামলা চালায়। এসময় ওই  কার্যালয়ে ঝুঁলিয়ে রাখা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ছুঁড়ে ফেলে দেয়া হয়। প্রচার কেন্দ্রে ব্যবহৃত চেয়ার, টেবিল, মোটরসাইকেল ভাঙচুর এবং মতিয়া চৌধুরীর ছবি সম্বলিত নির্বাচনী পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে বিএনপি কর্মীরা। 

এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে চলা সংঘর্ষ অন্যান্য এলাকাতেও ছড়িয়ে পড়ে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুঁড়ে। তবে ওই ঘটনায় উভয়দল একে-অপরকে দায়ী করেছে।

বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে জানিয়ে আজ শনিবার সকালে নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী শাহনেওয়াজ বলেন, ওই ঘটনায় কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হবে। 

ঢাকা টাইমস/ ১৫ডিসেম্বর/প্রতিবেদক/ওআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :