ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিএনপি প্রার্থীর সভায় হামলা- ভাঙচুর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:০৭

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা ও আখাউড়া) আসনে বিএনপির প্রার্থী মুসলিম উদ্দিনের নির্বাচনী পরামর্শ সভায় হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এদিকে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর ও বিজয়নগর) আসনে বিএনপি প্রার্থী খালেদ হোসেন মাহাবুব শ্যামলের পক্ষে গণসংযোগের সময় গাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এসময় বেশ কয়েকজন আহত হন।

শনিবার আখাউড়া উপজেলা সদরের দেবগ্রাম এবং বিজয়নগর উপজেলার চর ইসলামপুর এলাকায় এসব ঘটনা ঘটে।
বিএনপি প্রার্থী মুসলিম উদ্দিন অভিযোগ করেন, দেবগ্রামে বিএনপির প্রয়াত নেতা মন্তাজ মিয়ার বাড়িতে নির্বাচনী পরামর্শ সভা চলছিল। সভা চলাকালে ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীরা লাঠি-সোটা নিয়ে হামলা করে। এ সময় নির্বাচনী প্রচার কাজে ব্যবহৃত ৬-৭টি মোটরসাইকেল ও একটি অটোরিকশা ভাঙচুর করে তারা। হামলায় নেতাকর্মীরাও আহত হন।

হামলায় আহত মহসিন ভূইয়া বলেন, যুবলীগ নেতা জুলামিনের নেতৃত্বে যুবকরা লাঠি-সোঠা, রড নিয়ে হামলা করেছে। তিনি পিঠে ও ডান হাতে আঘাত পান।
উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন বেগ শাপলু বলেন, ছাত্রলীগ এ হামলার সাথে জড়িত নয়। এটা বিএনপির আভ্যন্তরীণ কোন্দলেই হয়েছে।
আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন তরফদার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে বিএনপি প্রার্থী খালেদ হোসেন মাহাবুব শ্যামলের পক্ষে গণসংযোগের সময় গাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

দুপুরে বিজয়নগর উপজেলার চর ইসলামপুর এলাকায় ধানের শীষের সমর্থনে প্রার্থীর স্ত্রী দলীয় নেতাকর্মী নিয়ে গণসংযোগ করতে যান। তখন প্রতিপক্ষের লোকজন গাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করে। এতে গাড়ির ড্রাইভার রাসেলসহ উপজেলা ছাত্রদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মিলন মৃধা আহত হন বলে প্রার্থীর স্ত্রী সৈয়দা মাহমুদা আক্তার মিতা অভিযোগ করেন।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তানভীর ভূঁইয়া এ ঘটনা দেখেননি বলে জানান।
বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীর হোসেন বলেন, গাড়ি ভাঙচুরের বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।

(ঢৃকাটাইমস/১৫ডিসেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত