আ.লীগের মিছিলে বিএনপির গাড়ি হামলা

ভোলা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:৫০ | প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:৫০

ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী গণসংযোগে ও প্রচারণা মিছিলে বিএনপির প্রার্থী মেজর (অব) হাফিজের গাড়ি দিয়ে হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় দুইটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এতে গুরুতর আহত ছয়জনকে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপরদিকে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করে বলা হয়, আওয়ামী লীগের সমর্থকরা মেজর হাফিজের গাড়ি ভাঙচুর করেছে।

স্থানীয়রা জানান, র্দীঘ ৮ বছর পর শনিবার সকালে লঞ্চযোগে নিজ নির্বাচনী এলাকা ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলায় আসেন বিএনপির প্রার্থী মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছিল।
মেজর হাফিজকে আনতে গাড়ি নিয়ে যান বিএনপির নেতাকর্মীরা। পথে শশীগঞ্জ বাজারে হামলা ও সংঘর্ষ হয়।

লালমোহন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল ইসলাম অরুণ এ ব্যাপারে ঢাকাটাইমসকে বলেন, শশীগঞ্জ বাজারে আওয়ামী লীগের একটি প্রচারণার গণসংযোগ চলছিল। সেখানে মেজর হাফিজকে আনতে যাওয়া গাড়ি উঠিয়ে দেয়া হয়। এ সময় দুইটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে বিএনপি কর্মীরা। হামলায় ৬ জন আওয়ামী লীগের কর্মী আহত হন। পরে তাদের তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গাড়িটি ধাওয়া করলে বিএনপির সমর্থকরা চলে যান।

তবে আওয়ামী লীগের এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মেজর হাফিজ। তিনি ঢাকাটাইমসকে বলেন, লঞ্চঘাট থেকে নেতাকর্মীরা গাড়ি নিয়ে তাকে আনতে গেলে কয়েকবার বাধার সম্মুখীন হন। এক পর্যায়ে থানার সামনে আওয়ামী লীগের কর্মীরা তাদের গাড়ি ভাঙচুর করেন। পরে গাড়িটি থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। আর যে দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়েছে সেটি বিএনপির কর্মী সমর্থকদের বলে দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে তজুমদ্দিন থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ফারুক আহমেদ জানান, দ্রুত গতিতে গাড়ি চালিয়ে নৌকার কর্মীদের ওপর উঠিয়ে দেয়ার অভিযোগে গাড়িসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। এব্যপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ঢাকাটাইমস/১৫ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :