বিজয় দিবসে ‘সোনার বাংলা’ গড়ার প্রত্যাশা

ঢাকা টাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৩৯

শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা আর উৎসবমুখর পরিবেশে সারাদেশে পালিত হয়েছে বাঙালি জাতীর গৌরবময় দিন মহান বিজয় দিবস। মিছিল, শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সারাদেশে বিজয় উৎসব পালন করেছে দেশবাসী। দিবসটি উপলক্ষে রাজধানী ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরগুলো সেজেছে অন্যন্য সাজে।
স্বাধীনতাবিরোধীদের বয়কট, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর সুখী সমৃদ্ধ দেশগঠনে ঐক্যবদ্ধভাবে সবাইকে নিজ নিজ ক্ষেত্রে কাজ করার প্রত্যাশা করেছেন দেশের সর্বস্তরের জনগণ। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে চেয়েছে জনতা। 
নানা আয়োজনে দেশের প্রতিটি বিভাগ জেলা উপজেলা শহরে পালন করা হয় মহান বিজয় দিবস। 

দিবসটি উপলক্ষে সাত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের সূচনা করেছে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট। তাদের দাবি, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে যুদ্ধাপরাধীমুক্ত করার। ঢাকা টাইমস প্রতিবেদকদের পাঠানো খবর: 
ফরিদপুর: 
মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মাদক মুক্ত সমাজ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচিতে ফরিদপুরে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। ভোরে সূর্যোদয়ের  প্রাক্কালে পুলিশ লাইনে ৩১ তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়। সকাল আটটায় শহরের গোয়ালচামট এলাকার শহীদ স্মৃতি ফলকে সর্ব প্রথম স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর পক্ষে জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে  সরকারি, বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন, রাজনৈতিক দল এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন পৃথকভাবে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শহীদদের  প্রতি শ্রদ্ধা জানান। পরে বিজয় শোভাযাত্রা বের করা হয়। 
গোপালগঞ্জ:  
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে রাত ১২টা ১ মিনিটে  পুষ্পস্তবক অর্পণ করে  শ্রদ্ধা জানানো হয়। জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। স্থানীয় শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ প্রদর্শণ করা হয়। 
চাঁপাইনবাবগঞ্জ: 
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্যদিয়ে বিজয় দিবসের কর্মসূচী শুরু হয়। 
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে দিবসের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক। এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন আলাদা আলাদাভাবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক আলোচনা সভা, র‌্যালি, চিত্রাঙ্কন, দেশাত্মবোধক সঙ্গীত ও রচনা প্রতিযোগিতাসহ নানা কর্মসূচীর আয়োজন করে। 
ভৈরব: 
মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা আর বিন¤্র ভালোবাসায় ভৈরবে উদযাপিত হয়েছে মহান বিজয় দিবস।
ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভৈরব বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিভাস্কর্য ‘দুর্জয় ভৈরবের’ পাদদেশে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনসহ অন্যরা। 
দৌলতপুর: 
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনাসহ নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। শহীদ বেদিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে স্থানীয়রা। 
বশেমুরবিপ্রবি:
গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যালি, জাতির পিতার সমাধি ও শহিদ স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধাঞ্জলি, আলোচনা সভা ও প্রীতি ক্রীড়া প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে মহান বিজয় দিবস। 
কিশোরগঞ্জ:
যথাযোগ্য মর্যাদায় কিশোরগঞ্জে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। সূর্যোদয়ের সঙ্গে ২১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির শুভ সূচনা হয়। গুরুদয়াল সরকারী কলেজ মাঠে স্মৃতিসৌধে পুস্পস্তবক অর্পণ, সকল সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।  মসজিদ-মন্দিরে জাতির কল্যাণ ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার শান্তি  কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা করা হয়।
কুড়িগ্রাম: 
কুড়িগ্রামে ৪৭তম মহান বিজয় দিবসে স্বাধীনতার বিজয়স্তম্ভে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। জেলা স্টেডিয়াম মাঠে কুচকাওয়াজ শেষে জেলার ২০জন মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা দেয়া হয়। 
কাপাসিয়া (গাজীপুর): 
গাজীপুরের কাপাসিয়ায় যথাযোগ্য মর্যাদায় ৪৭তম মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকালে কাপাসিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও থানা পুলিশের কুচকাওয়াজ এবং বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা ডিসপ্লে প্রদর্শণ করে। 
মাগুরা: 
মাগুরায় ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে বিজয় দিবসের সূচনা হয়। সকাল সাতটায় শহরের নোমানী ময়দানে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, প্রামান্য চিত্র প্রদর্শণ এবং হাসপাতাল, জেলখানা ও এতিমখানায় উন্নত খাবার পরিবেশন করা হয়। 
নন্দীগ্রাম :
জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে উৎসব মুখর পরিবেশে নন্দীগ্রামে নানা আয়োজনে বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। 
সকালে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে মহান বিজয় দিবসের শুভ সূচনা হয়। এরপর পুলিশের একটি চৌকস দল বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। 
পঞ্চগড়: 
পঞ্চগড়ে বিজয় দিবস উপলক্ষে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদদের স্মরণে মিলাদ মাহফিল ও শিশু কিশোর মাঝে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসভিত্তিক বিভিন্ন প্রকার বই বিতরণ করা হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন হলরুমে মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পের আওতাভূক্ত শিশুদের মধ্যে প্রতিযোগিতা শেষে তাদের মাঝে পুরস্কার হিসেবে এই বই বিতরণ করা হয়।
রাণীনগর (নওগাঁ):  
নওগাঁর রাণীনগরে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে তোপধ্বনি ও শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যে দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।
উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা বিএনপি, রাণীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবসহ রাণীনগর উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক অঙ্গ সংগঠন ও সাংস্কৃতিক সংগঠন উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অপর্ণসহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করে। 
যবিপ্রবি: 
মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) সামাজিক সংগঠন সহায়ক, রোটার‌্যাক্ট ক্লাব অব যবিপ্রবি ও রোটার‌্যাক্ট ক্লাব অব রপান্তর সদস্যরা যশোর সদরের জগহাটি গ্রামে গরীব শীতার্তদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ করে।

ঢাকা টাইমস/১৬ডিসেম্বর/ওআর

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :