ভোটের বাইরেই ইলিয়াসপত্মী লুনা, মিল্লাত

নিজস্ব প্রতিবেদক
 | প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৯:৪৭
তাহসিনা রুশদীর লুনা ও এম রশিদুজ্জামান মিল্লাত

সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনা এবং জামালপুর-১ আসনে রশিদুজ্জামান মিল্লাতের প্রার্থিতা বাতিলের আদেশ বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ।

ফলে এই দুটি আসনে বিএনপির কোনো প্রার্থী রইল না। আর আপিল বিভাগ থেকে নিষ্পত্তি হয়ে যাওয়ায় আর সুযোগও নেই কারো।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনসহ দুই সদস্যের আপিল বিভাগ দুই বিএনপি নেতার আবেদনে ‘নো অর্ডার’ দেয়। ফলে তাদের আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

সিলেট-২ আসনে লুনার মনোনয়নপত্র বৈধর আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করেন তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির ইয়াহহিয়া চৌধুরী। এতে বলা হয়, গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী সরকারি ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে চাকরি থেকে অবসরের পর তিন বছর পার না হলে তিনি ভোটে অযোগ্য। কিন্তু লুনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রারের পদ ছেড়েছেন কেবল ছয় মাস আগে।

এই আবেদনের শুনানি শেষে গত ১৩ ডিসেম্বর লুনার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশনের আদেশ স্থগিত করে হাইকোর্ট। এর বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন লুনা।

লুনা বিএনপির নিখোঁজ নেতা ইলিয়াস আলীর স্ত্রী। এই আসনে তার পাশাপাশি বিএনপির মনোনয়নের চিঠি পেয়েছিলেন তার ছেলে আবরার ইলিয়াস অর্ণবও। তবে রিটার্নিং কর্মকর্তা মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করায় অর্ণবকে মনোনয়ন দেওয়ার প্রয়োজন মনে করেনি বিএনপি।

অন্যদিকে জামালপুর-১ আসনে বিএনপির প্রার্থী এম রশিদুজ্জামান মিল্লাত দুর্নীতির মামলায় দ-িত। গত ২ ডিসেম্বর রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বাতিলও করে। তবে নির্বাচন কমিশনের আপিলে তিনি প্রার্থিতা ফিরে পান।

এরপর ওই আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বির দ্ধে রিট করেন। ১৩ ডিসেম্বর এই আবেদনও গ্রহণ করে হাইকোর্ট। আর এর বিরুদ্ধে আপিল করেন মিল্লাত।

বিএনপির প্রার্থী শূন্য আর যেসব আসন

আরো তিনটি আসনে বিএনপির কোনো প্রার্থী থাকছে না। এগুলো হলো: ঢাকা-২০ (প্রার্থী ছিলেন তমিজ উদ্দিন), মানিকগঞ্জ-৩ (প্রার্থী ছিলেন আফরোজা খান রিতা) ও বগুড়া-৩ (প্রার্থী ছিলেন মুহিত তালুকদার)। সোমবার এই তিন আসনে বিএনপি নেতাদের মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণা হয় আপিল বিভাগে।

ঢাকা-১ আসনে আবু আশফাক, বগুড়া-৭ আসনে মোরশেদ মিল্টন এবং চাঁদপুর-৪ আসনে এম এ হান্নানের প্রার্থিতাও স্থগিত হয়েছে হাইকোর্টে। তবে তাদের আপিলের সুযোগ রয়েছে। ফলে তারা ভোটে থাকতে পারবেন কি না, এই বিষয়টি নিশ্চিত হয়নি এখনো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :