সাতক্ষীরা-৩ আসনে বিএনপির ৫০ নেতা-কর্মী গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরা প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:৪৫ | প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:৩৯
ফাইল ছবি

সাতক্ষীরা-৩ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ডা. শহিদুল আলমের নির্বাচনী কার্যালয় থেকে ৫০ নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার গভীর রাতে কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা চৌমুহনী এলাকায় অবস্থিত বিএনপির প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে সংসদ সদস্য প্রার্থী ডা. শহিদুল আলম নেতা-কর্মীদের সঙ্গে  নির্বাচনী আলাপ-আলোচনা করছিলেন। এসময় পুলিশ তাদের  গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন,  দেবহাটা উপজেলা বিএনপির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, আশাশুনি উপজেলা বিএনপির সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফিক, যুগ্ম-সম্পাদক জুলফিকার আলী জুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক খায়রুল আহছান, কালিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুল খালেক, আশাশুনির শোভনালী ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহছাফুর রহমান মুকুল,  দেবহাটা উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ সদষ্য ইবাদুল ইসলাম, নলতা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আবু হাসানসহ ৫০ জন। 

এ বিষয়ে ডা. শহিদুল আলম জানান, তিনি নির্বাচনের দিন বিভিন্ন স্থানে পোলিং এজেন্ট ঠিক করার জন্য নেতাদের নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এসময় কালিগঞ্জ সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার জাবিরুল ইসলাম, কালিগঞ্জ থানার  ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  হাসান হাফিজুর রহমান ও দেবহাটা থানার  ওসি সৈয়দ আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাদের অফিস ঘিরে ফেলে। এসময়  সেখান  থেকে কমপক্ষে ৫০-৫২ নেতাকর্মীকে  ধরে নিয়ে যায় তারা।

তিনি বলেন, ‘আমি তাদের  গ্রেপ্তারের বিষয়টি জানতে চাইলে পুলিশ বলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা আছে। ’
কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের নামে মামলা আছে। তাদের কার বিরুদ্ধে কি মামলা আছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ঢাকা টাইমস/১৯ডিসেম্বর/প্রতিবেদক/ওআর 

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :