মোদির চরিত্রে পরেশই যুতসই

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৩:১৭

বলিউডে নির্মিত হচ্ছে ভারতের ১৫তম প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জীবনীভিত্তিক ছবি ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’।  যেখানে মোদির চরিত্রে অভিনয় করছেন বলিউড অভিনেতা বিবেক ওবেরয়। গত সোমবার মুম্বাইতে এটির প্রথম পোস্টার উন্মোচন করেন মহারাস্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডনবীস। পরে পোস্টারটি নিজের টুইটারে শেয়ার করেন অভিনেতা বিবেকও।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত সেই পোস্টার দেখে ক্ষেপেছেন ইন্ডাস্ট্রির আরেক অভিনেতা পরেশ রাওয়াল। এক টুইট বার্তায় তিনি দাবি করেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির চরিত্রে তার চেয়ে ভালো আর কাউকেই মানাবে না। পরেশের এমন মন্তব্যের সঙ্গে একমত সোশ্যাল মিডিয়ার ভক্তরাও। তাদেরও বেশিরভাগের মন্তব্য, মোদির চরিত্রে পরেশ রাওয়ালও যুতসই।

২০১৮ সালের মাঝামাঝি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বায়েপিকের ঘোষণা দিয়েছিলেন এই অভিনেতা।  ২০১৭ সাল থেকে ছবিটি নিয়ে কাজ শুরু করেছেন তিনি। কিন্তু পোস্টার কিংবা টাইটেল কিছুই মুক্তি পায়নি। গত বছর এক সাক্ষাৎকারে পরেশ জানিয়েছিলেন, স্ক্রিপ্ট নিয়ে কিছু কাজ বাকি আছে।  সেটা শেষ হলে সেপ্টেম্বর কিংবা অক্টোবরে শুটিং শুরু হবে। কিন্তু নতুন বছরের শুরুতেই বিবেক ওবেরয়কে মোদির লুকে দেখে চমকে যান দর্শকমহল।

যদিও শুরু থেকেই পরেশ রাওয়াল দাবি করে আসছেন, মোদির চরিত্রে তিনিই মানানসই। এবার বিবেককে তাক করেই মন্তব্য ছুঁড়লেন। বলেছেন, মোদির প্রতি তার যে অসম্ভব শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা রয়েছে, সেই জায়গা থেকে তিনিই চরিত্রটি সবচেয়ে বেশি ফুটিয়ে তুলতে পারবেন। যেটা আর কোনো অভিনেতার পক্ষেই সম্ভব নয়। এছাড়া চেহারা এবং বয়সের দিক থেকেও মোদির সঙ্গে তার দারুণ মিল রয়েছে বলে দাবি পরেশের।

তবে এখন আর সময় নেই। চলতি মাসে বিবেককে নিয়েই শুটিং শুরু হচ্ছে ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’র। শুটিংয়ের সেট ফেলা হবে দিল্লি, বারোদা, উত্তরাখন্ড ও হিমাচল প্রদেশে। ছবিটি পরিচালনা করছেন উমাঙ্গ কুমার। যিনি এর আগে ‘মেরি কম’ ও ‘সরবজিৎ’-এর বায়োপিক বানিয়ে খ্যাতি কুড়িয়েছেন।  মুক্তি পাওয়ার কথা ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগ মুহূর্তে। আগামী মে অথবা জুনে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

পরিচালকের যুক্তি, ওই সময় ছবিটি মুক্তি দিলে তা দেখে বর্তমান ক্ষমতাসীন দল বিজেপি সম্পর্কে ভারতীয় জনগণের মধ্যে ইতিবাচক মনোভাব তৈরি হবে। যার প্রভাব পড়বে ভোটে। কারণ এই ছবির কাহিনিতে থাকবে মোদির শুরু থেকে বর্তমান। দেখা যাবে, কীভাবে তিনি সাধারণ একজন চা বিক্রেতা থেকে ভারতের মতো বড় একটা দেশের প্রধানমন্ত্রী হলেন। পরিচালক মনে করছেন, শুধুমাত্র মোদির ভক্তরাই যদি সিনেমা হলে আসে, তবেই ছবিটি ব্যবসাসফল হবে।

ঢাকা টাইমস/১০ জানুয়ারি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত