পলক ‘ক্ষমাপ্রার্থী’

নিজস্ব প্রতিবেদক
| আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৭ | প্রকাশিত : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৩

হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে উঠে ক্ষমা প্রার্থী আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। বলেছেন, এটি ব্যস্ততার কারণে হয়ে গেছে। ভবিষ্যতে আরো বেশি সচেতন থাকবেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, পলক তার কাছে এই বিষয়টি নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এরপর আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় ঢাকা টাইমসের পক্ষ থেকে।

পলক বলেন, ‘অজান্তে হয়ে গেছে। আমি আসলে দুঃখ প্রকাশ করেছি এ জন্য। আমি ক্ষমা প্রার্থী। এমন আর কখনো হবে না। আমি সচেতন থাকব।’

নতুন করে মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথের পর দিন গত মঙ্গলবার এক পথচারীর বাইকে চড়ে অফিসে যান পলক। নিজেই যে ছবি পোস্ট করেন ফেসবুকে। তবে মাথায় হেলমেট না থাকায় পড়েন সমালোচনার মুখে।

গত আগস্টে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের পর সারাদেশেই বাইক আরোহীদের হেলমেট পরার বিষয়ে কড়াকড়ি আরোপ হয়েছে। চালকদের পাশাপাশি আরোহীও হেলমেট না পরলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের কথা বলছিলেন সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর বিষয়টি নিয়ে। এ সময় পলকের মাথায় হেলমেট না থাকার বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকরা জানতে চান তার কাছে। জবাবে তিনি বলেন, ‘ওই প্রতিমন্ত্রী সড়কে হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে যাত্রী হওয়ার ঘটনায় আমার কাছে ভুল স্বীকার করেছেন। তাকে আমি এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করেছিলাম। পরে তিনি এ ঘটনায় ভুল বুঝতে পেরে দুঃখ প্রকাশের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এমন ঘটনা ঘটবে না বলে আমাকে কথা দিয়েছেন।’

পলক ঢাকা টাইমসকে বলেন, ‘নিরাপত্তার জন্য সবার মোটর সাইকেলে হেলমেট পরা উচিত। আমিও হেলমেট পরি। সেদিন ঘটনাটি আকস্মিক ঘটে গেছে।’

এর আগেও ঢাকায় অ্যাপভিত্তিক মোটর সাইকেল সেবা পাঠাওয়ে চড়ে অফিসে গেছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। তখন তিনি হেলমেট পরেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :