মোসাদের নাকের ডগায় বসে তথ্য পাচার ইসরায়েলি মন্ত্রীর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৩৯

বিশ্বসেরা গোয়েন্দা সংস্থার একটি ইসরায়েলের মোসাদ। পৃথিবীর প্রতিটি কোণে তাদের বাহিনী রয়েছে বলে মনে করা হয়। অথচ এই মোসাদের নাকের ডগায় বসে এত দিন চরম শত্রুরাষ্ট্র ইরানের কাছে তথ্য পাচার করেছে ইসরায়েলেরই একজন সাবেক মন্ত্রী।

এমন ঘটনায় অবাক হয়েছেন ইসরায়েলের রাজনীতিকেরাও। মোসাদ ও ইসরায়েলের অভ্যন্তরীণ গোয়েন্দা বিভাগ শেন বাথকে ফাঁকি দিয়ে দিনের পর দিন সাবেক জ্বালানিমন্ত্রী গোনেন সেগেভ ইরানের কাছে তথ্য পাচার করেছেন। এরই মধ্যে তিনি অপরাধ স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। যে গুপ্তচর সংস্থার নজর এড়ানো সত্যি করেই কঠিন তার চোখকে ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘদিন তিনি কীভাবে এমন কাজ করলেন, তা নিয়ে বিস্ময় দেখা দিয়েছে। এ সময় তিনি ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা-সংক্রান্ত তথ্য পাচার করেছেন। এ ঘটনায় আদালত তাকে ১১ বছরের কারাদ- দিয়েছে।

জানা গেছে, গোনেন সেগেভ ১৯৯২ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯৫-৯৬ সালে তিনি জ্বালানিমন্ত্রী হয়েছিলেন। যুদ্ধক্ষেত্র ও দেশের গুরুত্বপূর্ণ পরিকাঠামো-সংক্রান্ত তথ্য তিনি তুলে দিয়েছেন ইরানের হাতে। সেই সময়ে তিনি ইরানি গুপ্তচর সংস্থার এজেন্ট হয়ে মন্ত্রিত্বের আড়ালেই চরবৃত্তি চালিয়েছিলেন। সেসব তথ্যের মধ্যে আরও রয়েছে ইসরায়েলি মন্ত্রী ও নিরাপত্তা-সংক্রান্ত কর্মকর্তাদের বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য।

সাবেক এই মন্ত্রীর গুপ্তচরবৃত্তির তদন্ত করেছে ইসরায়েলের অভ্যন্তরীণ গোয়েন্দা বিভাগ শেন বেথ। তদন্তে উঠে এসেছে, ৬২ বছর বয়সী সেগেভ ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বিভাগে এমন কিছু ব্যক্তিকে নিযুক্ত করেছেন, যাদের সঙ্গে অন্য দেশ, বিশেষ করে ইরানের যোগ রয়েছে, যা চরম বিপজ্জনক।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ মিত্র ইসরায়েলের সবচেয়ে বড় শত্রু ইরান। দুই দেশের মধ্যে বিভিন্ন ইস্যুতে বাগবিতণ্ডা লেগেই থাকে। তা ছাড়া একে অপরকে তীব্র ভাষায় হুমকি নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এমন পরিস্থিতিতে ইসরায়েলের একজন মন্ত্রী পর্যায়ের ব্যক্তিকে ইরানের কাজে লাগানোতে বিস্ময় সৃষ্টি হয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে। 

(ঢাকাটাইমস/১০জানুয়ারি/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :