আব্বাসের সম্পদের মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি

আদালত প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:১০

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ চার সপ্তাহের জন্য স্থগিত করায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি পুনর্নির্ধারণ করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার ঢাকার ৬নম্বর বিশেষ জজ ড. মো. শেখ গোলাম মাহবুবের আদালত নতুন এ দিন ধার্য করেন।
এদিন তদন্তকারী কর্মকর্তা (দুদক) তৎকালীন সহকারী পরিচালক মো. খায়রুল হুদার অবশিষ্ট সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু মির্জা আব্বাসের পক্ষে বলা হয়, গত ২ জানুয়ারি আপিল বিভাগ এ মামলার কার্যক্রম চার সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন। ফলে আদালত ১০ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করেন।  

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ২০১৭ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর সাক্ষ্য দেওয়া শুরু করেন। এর আগে মামলাটিতে আরও ২৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত।
২০০৭ সালে ১৬ আগস্ট ৫ কোটি ৯৭ লাখ ১৩ হাজার ২৩৪ টাকার জ্ঞাত আয়বর্হিভূত সম্পদ অর্জন ও ৩৩ লাখ ৪৮ হাজার ৫৮১ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে দুদকের তৎকালীন সহকারী পরিচালক মো. শফিউল আলম

রমনা থানায় মামলাটি করেন। মামলায় মির্জা আব্বাস ছাড়াও তার স্ত্রী আফরোজা আব্বাসকে আসামি করা হয়। তদন্ত শেষে সাক্ষ্য দেওয়া কর্মকর্তা ২০০৮ সালে দুইজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। চার্জশিটে ৭ কোটি ৫৪ লাখ ৩২ হাজার ২৯০ টাকার জ্ঞাত আয়বর্হিভূত সম্পদ অর্জন ও ৫৭ লাখ ২৬ হাজার ৫৭১ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ করা হয়। চার্জশিট দাখিলের পর আফরোজা আব্বাস হাইকোর্টে কোয়াশমেন্ট মামলা করে তার অংশের মামলা বাতিল করেন।

(ঢাকাটাইমস/১১জানুয়ারি/ জেডআর/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :