চাকরি স্থায়ীয়ের দাবিতে কয়লা খনিতে বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, পার্বতীপুর (দিনাজপুর)
 | প্রকাশিত : ১৩ অক্টোবর ২০১৬, ১৮:১৩

চাকরি স্থায়ী করার দাবিতে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির শ্রমিকরা বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। আজ বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) বেলা ১১টায় খনির প্রধান ফটকের সামনের রাস্তায় বিক্ষোভ করে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। সভায়  সভাপতিত্ব করেন বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি। বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা পার্বতীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক, সাধারণ সম্পাদক আবু সুফিয়ান, সাংগঠনিক সম্পাদক এহসানুল হক সোহাগ, অর্থ সম্পাদক মোরসালিন রহমান, খনি শ্রমিক মানিক মন্ডল, শ্রমিক নেতা ওয়াজেদ আলী, শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।  

শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল ইসলাম বলেন, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এক হাজারেরও বেশি শ্রমিক কয়লা খনিতে কাজ করছেন। অথচ তাদের বেতন দেওয়া হয় দিনে মাত্র ২৯৭ টাকা। খনিতে কাজ করতে গিয়ে অনেক শ্রমিক আহত হয়ে পঙ্গু হয়েছেন। কয়লার চাপায় মারা গেছেন খনি শ্রমিক রঞ্জিত কুমার। কিন্তু তাদের পরিবারের সদস্যদের উপযুক্ত পুর্নবাসন করা হয়নি।
চুক্তি অনুযায়ী খনি কর্তৃপক্ষ রেশন ও প্রফিট বোনাস বৃদ্ধি করছে না। কয়লার ময়লা আর ধুঁলোর কারনে কোন শ্রমিক মাসে ১৫ থেকে ২০ দিনের বেশি কাজ করতে পারেন না। নিশ্চিত করা হয়নি শ্রমিকদের চিকিৎসা সেবা ও ঝুকি ভাতাও। শ্রমিকরা দেশের জ্বালানি খাতে অবদান রাখলেও কর্মকর্তারা মুল বেতনের বাইরে বছরে লাখ লাখ টাকার প্রফিট বোনাস তুলছেন। অথচ খনি কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের চাকুরি স্থায়ী করতে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।
তিনি অনতিবিলম্বে শ্রমিকদের চাকুরি স্থায়ী করতে প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। তা না হলে শ্রমিকরা এবার আন্দোলনে গেলে হয় চাকুরি স্থায়ী হবে, না হয় বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে আমাদের স্মরণে শহীদ মিনার রচিত হবে। শ্রমিক ইউনিয়নের প্রধান উপদেষ্টা হাফিজুল ইসলাম শ্রমিকদের ন্যয্য দাবির প্রতি একাত্বতা ঘোষণা করে দাবি আদায়ে শ্রমিকদের সাথে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

(ঢাকাটাইমস/ ১৩ অক্টোবর/ প্রতিনিধি/ এআর/ঘ.)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত