প্রবৃদ্ধিতে সরকারের লক্ষ্যপূরণ হবে না: বিশ্বব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর ২০১৬, ১৫:২৬

চলতি অর্থবছরে সরকারের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে না বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। বাজেট প্রস্তাবনায় সরকার চলতি অর্থবছরে ৭.২ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যের কথা জানালেও বিশ্বব্যাংক বলছে প্রবৃদ্ধি হবে ৬.৮ শতাংশ।

দুপুরে রাজধানীতে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে ত্রৈমাসিক অর্থনৈতিক প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন বাংলাদেশে দাতা সংস্থাটির মুখ্য অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেন।

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়ে সরকারের তুলনায় আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার প্রাক্কলন বরাবর কম থাকে। বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফের মতো সংস্থাগুলো প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে সব সময় রক্ষণশীল থাকে। তবে অর্থবছর শেষে তাদের প্রাক্কলনের চেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনের কথা জানিয়ে আসছে সরকার।

গত অর্থবছরে বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফ বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার ছয় এর কোটায় থাকবে জানালেও সরকার জানিয়েছে প্রথমবারের মতো দেশে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭.০৫ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরের তিন মাসের মূল্যায়নে বিশ্বব্যাংক এবারও যে প্রাক্কলন করেছে তা সরকারের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ০.৪ শতাংশ কম। জাহিদ হোসেন বলেন, ‘বেসরকারি ও সরকারি খাতে ভোগ কমে গেছে। গত বছর সরকারি কর্মীদের বেতন বেড়েছিল, এবার কেবল ভাতা বাড়বে। এ কারণে প্রবৃদ্ধির হার কিছুটা কম হবে।’

আগামী অর্থবছরে (২০১৭-১৮) প্রবৃদ্ধির হার আরও কমে ৬.২ শতাংশে নামবে বলে মূল্যায়ন করছে বিশ্বব্যাংক।

আশানুরুপ প্রবৃদ্ধি অর্জন না হওয়ার পেছনে ‘অপর্যাপ্ত’ বিনিয়োগকে বাধা হিসেবে চিহ্নিত করেছে বিশ্বব্যাংক। জাহিদ হোসেন জানান, বাংলাদেশে সঞ্চয় ৩০ শতাংশ হলেও বিনিয়োগ এর চেয়ে অনেক কম। পরিবেশ না থাকায় মানুষ হাতে টাকা রেখে দিচ্ছে।

বিনিয়োগ বাড়াতে জ্বালানি, সড়ক ও অবকাঠামো খাতে উন্নয়ন, রাজনৈতিক অস্থিরতা কমানো এবং নিরাপত্তার দিকে নজর দেয়ার পরামর্শ দেন জাহিদ হোসেন।

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম পড়ে যাওয়ার পর মধ্যপ্রাচ্যের অর্থনীতিতে চাপ বেড়ে যাওয়ার কারণে বাংলাদেশে রেমিটেন্স কমে যাচ্ছে বলেও জানান জাহিদ হোসেন। এ কারণে মধ্যপ্রাচ্য থেকে শ্রমিকরা আগের তুলনায় কম টাকা পাছাচ্ছে বলে জানান তিনি।

রপ্তানির ক্ষেত্রে একটি পণ্যের (পোশাক) ওপর নির্ভরশীলতা বিপজ্জনক মন্তব্য করে রপ্তানির বহুমুখীকরণের পরামর্শও দেন বিশ্বব্যাংক অর্থনীতিবিদ।

ঢাকাটাইমস/৩অক্টোবর/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত