চীনের বাজারে রপ্তানি বাড়ছে ২৫ শতাংশ হারে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ অক্টোবর ২০১৬, ১৯:৩২

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, চীনের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পণ্যের রপ্তানি ২৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। আশা করা হচ্ছে, অল্প কিছুদিনের মধ্যে বাংলাদেশের রপ্তানি এক বিলিয়ন ছাড়িয়ে যাবে। বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য স্পেশাল ইকনোমিক জোনে চীনের জন্য বরাদ্দ রয়েছে। চীন তৈরিপোশাক শিল্প রিলোকেশন করছে, বাংলাদেশের স্পেশাল ইকনোমিক জোন এর উপযুক্ত স্থান হতে পারে। চীনের বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ সবধরনের সহযোগিতা করবে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ রপ্তানি বৃদ্ধি করতে বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। চলতি ৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় রপ্তানি পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ এবং রপ্তানি পণ্যসংখ্যা বৃদ্ধির বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নতুন নতুন পণ্য রপ্তানিতে নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

রবিবার ঢাকায় সিরডাপ মিলনায়তনে ইকনোমিক রিপোর্টার্স ফোরাম আয়োজিত ‘বাংলাদেশ-চীন দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ: সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার সব দেশের সাথে সুসম্পর্কের  নীতি মেনে চলছে। রাজনৈতিক দূরদর্শিতা ও দক্ষতার সাথে দেশ পরিচালনার কারণে দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। চীন বাংলাদেশের বড় বাণিজ্যিক বন্ধু। দু‘দেশের বর্তমান বাণিজ্যের পরিমাণ প্রায় ১১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশ বর্তমানে প্রায় এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য চীনে রপ্তানি করছে। চীনে রপ্তানি ধারা অব্যাহত থাকলে এ বাণিজ্য ব্যবধান কমে আসবে। জাপান, অস্ট্রেলিয়া, ইতালির মতো চীনও বর্তমানে প্রায় পাঁচশত পণ্যের ওপর ডিউটি ফ্রি সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশকে।

মন্ত্রী বলেন, চীন বাংলাদেশের বড় উন্নয়ন সহযোগী। পদ্মা সেতু, কর্ণফুলি টানেল, গার্মেন্টস পল্লীসহ অনেক বড় বড় প্রকল্পে চীন আর্থিক সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।  চীনের প্রেসিডেন্টের আসন্ন বাংলাদেশ সফরে বেশ কিছু এমওইউ স্বাক্ষরিত হবে এবং বেশ কিছু প্রকল্পের উদ্বোধন করা হবে।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এডিশনাল রিসার্স ডিরেক্টর ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া, বিএনপি নেতা এবং সাবেক সেনা প্রধান মাহবুবুর রহমান, বিএফইউজে‘র প্রেসিডেন্ট মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, পিআরআইর ভাইস প্রেসিডেন্ট ড. সাদেক আহমেদ এবং সাবেক রাষ্ট্রদূত মুন্সী ফয়েজ আহমেদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন ইকনোমিক রিপোর্টার্স ফোরামের প্রেসিডেন্ট এবং একুশে টিভির প্ল্যানিং এডিটর সাইফ ইসলাম দিলাল।

(ঢাকাটাইমস/০৯অক্টোবর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত