ডিলানকে নিয়ে মাকসুদ

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর ২০১৬, ১৪:৫৬

অনেকটা ধারার বিপরীতে মার্কিন গায়ক বব ডিলান এবার সাহিত্যে নোবেল পেয়েছেন। এ বিষয়টি নিয়ে পৃথিবীজুড়েই এখন আলোচনা-সমালোচনা চলছে। তার ঢেউ আছে বাংলাদেশের শিল্প-সাহিত্য-সংস্কতি অঙ্গনেও। কেউ এই নোবেলপ্রাপ্তির পক্ষে, আবার কেউ বিপক্ষে। দুই পক্ষের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক জমে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ডিলান-নিন্দুকদের এক হাত দেখে নিলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী মাকসুদুল হক। এবারের সাহিত্যের নোবেল পুরস্কারের পক্ষ নিয়ে ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের ৯৯% পাবলিক যারা বব ডিলানের নোবেল বিজয় নিয়ে সমালোচনা করছেন, আমার ধারণা তারা জীবনে একবারও তার গান শোনেন নাই, তার কাব্যগ্রন্থ বা প্রবন্ধ ঘেটে দেখেন নাই। এমনকি সে যে 'গায়ক' ছাড়াও একজন পেইন্টার এবং তার একাধিক একক আর্ট প্রদর্শনী বিশ্বের অনেক দেশে হয়েছে এবং হয়- তারা তার বিন্দু মাত্র খবর রাখেন না। তাই তাদের হুজুগে পোস্টগুলো দেখতেছি আর হাসতেছি।’

মাকসুদ আরো লিখেছেন, ‘‘যদি ১৯৭১ এ 'কনসার্ট ফর বাংলাদেশ' এ ডিলান অংশগ্রহণ না করতেন তবে ডিলানের নোবেল বিজয়কে আমাদের # গ্রেট-বাংগালি-রেইস যে দুই পয়সা পাত্তাই দিতো না- সে বিষয়ে আমি নিশ্চিত। মনে হচ্ছে ডিলানের 'গায়ক' হওয়াটাই যেনো তার 'অপরাধ'। খেয়াল না করে পারলাম না যে আদতে আমরা ধরেই নিয়েছি 'গায়কদের' দ্বারা ভালো কোনো কিছুই সম্ভব না।...’’

সাহিত্যে এ বছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন মার্কিন গায়ক ও গীতিকার রবার্ট অ্যালেন জিমারম্যান, সংগীত বিশ্ব যাকে চেনে বব ডিলান নামে। বৃহস্পতিবার সাহিত্যে ১১৩তম নোবেল বিজয়ী হিসেবে তার নাম ঘোষণা করেন রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমির স্থায়ী সচিব সারা দানিউস।

 

সুইডিশ অ্যাকাডেমি বলছে, ‘আমেরিকার সংগীত ঐতিহ্যে নতুন কাব্যিক মূর্চ্ছনা সৃষ্টির’ জন্য ৭৫ বছর বয়সী রক, ফোক, ফোক-রক, আরবান ফোকের এই কিংবদন্তিকে নোবেল পুরস্কারের জন্য বেছে নিয়েছে তারা।

গার্ডিয়ান লিখেছে, এর আগে বহুবার নোবেলের মনোনয়নের তালিকায় নাম এলেও সাহিত্যের সবচেয়ে সম্মানজনক এ পুরস্কারের ঘোষণায় ডিলানের নাম যে বিস্ময় হয়েই এসেছে।

ঢাকাটাইমস/১৪অক্টোবর/এসআর/এমএইচ

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত