‘সবাই আমাকে খুব আদর করে’

অনলাইন ডেস্ক
| আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০১৬, ১৫:০০ | প্রকাশিত : ১৬ অক্টোবর ২০১৬, ১৩:১৩

চলচ্চিত্রের শিশুশিল্পী সাদিকা রহমান রাইসা।  মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। এই শিশুটি পড়াশোনার পাশাপাশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করে ইতিমধ্যে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। চারটি চলচ্চিত্রসহ বেশকিছু কয়েকটি নাটকে অত্যন্ত সাফল্যের সাথে অভিনয় করেছে সে। মুন্তাহিদুল লিটন পরিচালিত ছবি ‘শেষ চুম্বন’ছাড়াও স্যালুট, খাঁচা, বাদশা ছবিতে অভিনয় করেছে। এড়াও নাটকেও রয়েছে তার পদচারণা। ইতোমধ্যে অভিনয় করেছেন গাজী আপেল মাহমুদের ‘আড়াল’শামীম শাহেদের ‘শনিবারের চোর’ ও সুমন ধরের ‘গল্প হলেও সত্যি’ নাটকে অভিনয় করেছেন। নাচ গানেও সমান পারদর্শী রাইসা। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন শাহজালাল রোহান

কেমন আছো?
ভালো। 
এই অল্প বয়সে বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছো। কেমন লাগছে?
সত্যিই করে যদি বলি অভিনয়কে আমি খুব ভালোবাসি। আমি ছোট থেকেই মঞ্চে কবিতা, গান করেছি। মঞ্চ আমার ভাল লাগে। কখনোই ভয় পেতাম না। তারপরে চলচ্চিত্রে শিশু শিল্পী হিসেবে মূল চরিত্রে কাজ করেছি। অনেক ভাল লাগে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে। দোয়া করবেন আমি পড়াশোনা ও অভিনয় চালিয়ে যেতে চাই। 

অভিনয়ে আসার পেছনে কার অবদান ছিল?
আমার বাবা সাদেকুর রহমান ও মা জেসমিন রহমানের ভুমিকা অনেক। বাবা ছোট বেলায় আমাকে বুলবুল ললিতকলা একাডেমিতে ভর্তি করে দেন। তারপরে সবক্ষেত্রেই আমার বাবা মা আমাকে অনুপ্রেরণা দেন। 

অভিনয়ের ভালো লাগা কি?
সিনিয়র শিল্পীদের সাথে অভিনয় করতে ভাল লাগে। সবাই আমাকে ‍খুব আদর করে। আমিও ওনাদের কাছ থেকে অভিনয় শিখতে পারি।

বড় হয়ে কি হবার ইচ্ছে?
ভালো অভিনয় শিল্পীর পাশাপাশি ডাক্তার হতে চাই। 

এ পর্যন্ত কোন শিল্পীর গানে লিপসিং করেছো?

আমি অনেক স্বনামধন্য কন্ঠশিল্পীর গানে লিপসিং করেছি।  সবশেষ মেহের আফরোজ শাওনের ‘মরিলে কান্দিস না আমার দায়’ গানটিতে লিপসিং করেছি।

সময় দেয়ার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ

আপনাকেও ধন্যবাদ।

(ঢাকাটাইমস/১৬অক্টোবর/শারো/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত